শিরোনামঃ
ভারতের দিল্লিতে নিযুক্ত হাই-কমিশানের প্রতিনিধি দলের বেনাপোল বন্দর পরিদর্শন নরসিংদীর শিবপুরে উপজেলা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ইতিহাসে এই প্রথম নারীদের নেতৃত্বে দূর্গাপূজার আয়োজন যশোরে নরসিংদীর রায়পুরায় ছাত্রলীগ সভাপতির বিরদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ,ভিকটিম উদ্ধার স্বাধীনতার ৫০ বছরেও তালিকায় ঠাঁই মেলেনি মণিরামপুরের ৫ শহীদ মুক্তিযোদ্ধার ৫ ভাইয়ের সঙ্গে তরুণীর সংসার রাজাপুর থেকে চুরি হওয়া ২টি গরু বরিশাল থেকে উদ্ধার চোর চক্রের সর্দার আটক ছাতকে নৌ-পথের ছিনতাইকারী ইদন মিয়া গ্রেফতার টানা বর্ষণে বিপর্যস্ত বরগুনাসহ উপকূল ঠাকুরগাঁওয়ে রশিক রায় জিউ মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি
হিন্দু ধর্মের থেকে ইসলাম ভালো আল্লাহ পরম

হিন্দু ধর্মের থেকে ইসলাম ভালো আল্লাহ পরম শক্তিশালী বলেন কানায়া কুমার


ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিঃ ভারতে যতজন বামপন্থী রাজনীতিজ্ঞ ব্যাক্তি নিজেদের কমিউনিস্ট বলে দাবি করে তারা কেউ কমিউনিস্ট নয়। কারণ কমিউনিস্টদের আসল নীতি নাস্তিক, এটাই কমিউনিস্ট হওয়ার আসল পরিচয়। নিজের পুরো নাম সকলের কাছে লুকিয়ে রাখে। জানিয়ে দি, বামপন্থী নেতা কানায়া কুমার যে নিজেকে কমিউনিস্ট বলে দাবি করে। নিজেকে পরোক্ষভাবে নাস্তিক বলা এই নেতা এখন ইসলাম ধর্মের প্রচারকদের মতো মন্তব্য করতে শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু ভারতের কমিউনিস্টরা সকলেই হিন্দু ধৰ্ম বিরোধী মুসলিম বা খ্রিষ্টান। ভারতের কমিউনিস্টরা সকলেই নকল ও জালি। ভারতের কমিউনিস্টরা নিজেদের নাম হিন্দুদের মতো রাখে যাতে হিন্দুদের সহজে মূর্খ বানানো যায়। একদিকে কানায়া কুমার হিন্দু নাম নিয়ে হিন্দুদের বিরোধ করছে অন্যদিকে ডি রাজা। সেখানে ছোয়া ছুত, ছিল কিন্তু ইসলামের মসজিদে কোনো ছুঁয়া-ছুত থাকে না। মসজিদে কোনো ভেদভাব থাকে না সকলেই সমান অধিকার পায়।” শুধু এই নয় কানায় কুমার বলেন- আল্লাহ প্রচন্ড শক্তির অধিকার, এই মন্তব্য শোনার পরেই উপস্থিত সকলে কানায়া কুমারকে সন্মান জানিয়ে তালি দেন। সম্প্রতি মুসলিম সম্প্রদায়ের সামনে এক কার্যক্রমে কানায়া কুমার এমন মন্তব্য করেছেন যা শোনার পর আপনার চোখ কপালে উঠবে। ওই কার্যক্রমে বামপন্থী নেতা নিজেকে তাদেরই একজন বলে বক্তব্য শুরু করেছিলেন। বক্তব্য চলাকালীন কানায়া কুমার ইসলাম ধর্মগুরুদের মতো মন্তব্য করে বলেন, “আমরা ভারতের মানুষজন, আমরা ইসলাম গ্রহণ করেছি কারণ আগের ধর্মের(হিন্দু) থেকে এই ধৰ্ম ভালো। অবাক করার বিষয় এই যে নিজেকে নাস্তিক বলে দাবি করা ব্যাক্তি হটাৎ কেন হিন্দু ধর্মকে গালাগালি করে ইসলামের প্রচার শুরু করে দিয়েছে। জানিয়ে দি, হিন্দু ধর্মে খুঁত বের কৰক এই নেতা মসজিদে মহিলাদের প্রবেশ নিষিদ্ধ নিয়ে কোনো কথা বলেনি। এমিনকি শিয়াদের মসজিদে সুন্নি নিষেধ এটা নিয়েও কথা বলেনি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »