সৌদিতে অস্ত্র বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত ইতালির

সৌদিতে অস্ত্র বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত ইতালির


ফটো-সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে অস্ত্র বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে ইতালি সরকার। দেশটি জানিয়েছে, তারা সৌদি জোটের কাছে নতুন করে অস্ত্র বিক্রির অনুমতি দেবে না। ২০১৫ সালের ২৬ মার্চ থেকে ইয়েমেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে সৌদি আরব ও তার মিত্রদের কাছে অস্ত্র বিক্রি করে আসছিল ইউরোপের দেশগুলো।

 

এদিকে, যুদ্ধ অব্যাহত থাকায় ইয়েমেনে ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। সেখানে খাদ্য নেই, ওষুধ নেই। এ কারণে ইউরোপের মানবাধিকার সংগঠনগুলো ওই আগ্রাসনে ইউরোপও শরীক হওয়ায় এর সমালোচনা করেছে। এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে সমসাময়িক যুগে ইয়েমেনে সবচেয়ে বড় মানবিক বিপর্যয় ঘটেছে।

 

ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানি ও ইতালি সৌদি আরবের গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্রের যোগানদাতা। তবে সবচেয়ে বেশি অস্ত্র আমদানি করা হয় যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে। ছয় বছর অতিক্রান্ত হতে চললেও যুদ্ধ এখনো অব্যাহত রয়েছে।
উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী করোনা পরিস্থিতিতেও সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ইয়েমেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ও গণহত্যা অব্যাহতর রাখায় আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিল।

 

বিশেষ করে ইউরোপের যেসব দেশ সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটকে অস্ত্র সরবরাহ করে আসছিল সেসব দেশের ওপর মানবাধিকার সংগঠনগুলোর চাপ বজায় ছিল। এরই মধ্যে ইতালি তাদের অবস্থান পরিষ্কার করলো।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »