শিরোনামঃ
১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথম নির্মিত শহীদ মিনার বৌমার সন্তান না হওয়ায় নিজেই গর্ভবতী হলেন শাশুড়ি! যশোরের ঝিকরগাছায় মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় কলেজ ছাত্র নিহত অগ্নিবীণা ক্রীড়া ও যুব সংঘের পক্ষ থেকে আবু নাইম ইকবালকে ফুলেল শুভেচ্ছা এসআই আকবরকে পালাতে সহায়তা করায় এসআই হাসান বরখাস্ত হালদায় ৯ কেজি ওজনের আঘাতপ্রাপ্ত মৃত মা মাছ উদ্ধার গজারিয়ায় পাকা সেতুতে উঠতে বাঁশের সাঁকো ৬ বছরেও কাটেনি ভোগান্তি ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের গজারিয়ায় ২০ মিনিট ব্যাবধানে ৪ টি সড়ক দুর্ঘটনায় আহত-২৪ নরসিংদীর ইটাখোলা হাইওয়ে পুলিশের নিরাপদ সড়ক শীর্ষক সচেতনতা কার্যক্রম নরসিংদীর মনোহরদীতে পুস্প সাহা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা 
সোনারগাঁয়ে অবৈধ গ্যাস বিস্ফোরণ ঘটার আতঙ্কে আছে

সোনারগাঁয়ে অবৈধ গ্যাস বিস্ফোরণ ঘটার আতঙ্কে আছে এলাকাবাসী


ফটো-কামাল হোসেন

কামাল হোসেন, বার্তা কক্ষঃ নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিতাস গ্যাসের টনক নড়েছে। সোনারগাঁ এলাকায়ও বিভিন্ন গ্রামের পাড়া মহল্লা থেকে শুরু করে নদী খালের উপর দিয়েও অবৈধ গ্যাস সংযোগ দেওয়া হয়েছে। কমদামী সরু পাইপ ও নিম্নমানের সরঞ্জামাদি ব্যাবহারের ফলে নারায়ণগঞ্জের মতো সোনারগাঁ এলাকায়ও ভয়ংকর বিস্ফোরণের সম্ভাবনা করছেন বিজ্ঞমহল। এ অজানা মৃত্যু ফাদে পরে বহু মানুষের জীহনহানির ঘটনার সম্ভাবনা। ইতি মধ্যে সোনারগাঁ উপজেলার কয়েক জায়গায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। কয়েকজনের প্রাণহানি ও মারাত্মক ভাবে আহত হওয়ার ঘটনার খবর মিডিয়ায় এসেছে। এ ব্যাপারে প্রশাসন কয়েকবার অভিযান পরিচালনা করে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। তার পরও কিছু অসাধু জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতারা মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে আবারও অবৈধ সংযোগ দিয়ে থাকে। সরকার প্রতিটা বৈধ চুলার জন্য সাড়ে আটশ টাকা নিচ্ছেন আর ডাবল চুলার জন্য নিচ্ছেন সাড়ে নয়শ। কিন্তু হাজার হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ দিয়ে এক শ্রেণির অসাধু জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক নেতারা কোটি কোটি হাতিয়ে নিচ্ছে। সরকার হারাচ্ছে কোটি টাকার মহামূল্যবান রাজস্ব। আবার দেখা গেছে অনেক বাড়িতে একটা বৈধ চুলা নেয়া হয়েছে। পরে ভাড়াটিয়া বাসার জন্য পাঁচটা-সাতটা অবৈধ চুলার সংযোগ নিয়ে কয়েক বছর ধরে গ্যাস জালানো হচ্ছে বাড়তি কোন বিল দিচ্ছে না। এমন প্রতিটা বাড়িতে পাঁচ দশটা অবৈধ গ্যাস সংযোগ নিয়ে দিব্যি চালানো হচ্ছে অবৈধ গ্যাসের চুলা, সরকারী কোশাগারে কোন প্রকার টাকা জমা হচ্ছে না। বাড়ির মালিক বাড়ির ভাড়াটিয়াদের থেকে মাসে মাসে গ্যাস বিল আদায়ও করছে ঠিকই কিন্তু সরকারী খাতায় সে টাকা জমা হচ্ছে না। নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিডেটের ৪ কর্মকর্তা ও ৪ কর্মচারীকে কর্তব্য কাজে অবহেলা ও গাফিলতির জন্য সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তিতাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী মোঃ মামুন তথ্য দিয়ে নিশ্চিত করেছেন। ৭ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকালে তিতাস কার্যালয় থেকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তিনি আরো জানান, সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের দায়িত্বে অবহেলার কারণে মসজিদে বিস্ফোরণ জনিত দুর্ঘটনা ঘটার অভিযোগে এ ৮কর্মকর্তা-কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তাদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। বরখাস্ত হওয়া কর্মকর্তারা হলো-ফতুল্লা জোনের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মোহম্মদ সিরাজুল ইসলাম, উপ-ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমান রাব্বি, সহকারী প্রকৌশলী এসএম হাসান শাহরিয়ার, সহকারী প্রকৌশলী মানিক মিয়া। আর বরখাস্ত হওয়া কর্মচারীরা হলো-সিনিয়র সুপার ভাইজার মনিবুর রহমান চৌধুরী, সিনিয়র উন্নয়নকারী মোঃ আইউব আলী, সাহায্যকারী হানিফ মিয়া এবং প্র-কর্মী ইসমাইল প্রধান। তল্লা এলাকায় বাইতুল সালাত জামে মসজিদে গত ৪ সেপ্টেম্বর আনুমানিক রাত সাড়ে ৮টায় বিস্ফোরণ ঘটে। এ ঘটনায় ২৭ জন মুসল্লি মারা গেছেন এবং আরও ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ২০ মার্চ ২০২০ ভোরের কাগজ পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে জানা যায়, সোনারগাঁ উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ও বারদী ইউনিয়নের শতাধিক গ্রামের প্রায় ৫০ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে তিতাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি সোনারগাঁ জোন। পৌরসভার চাঁন্দেরকীর্ত্তি এলাকায় অভিযান চালিয়ে রাস্তার পাশের অর্ধকিলোমিটার গ্যাস পাইপ তুলে ফেলে। এর নেতৃত্ব দেন তৎকালীন সোনারগাঁও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম। ১৪ মার্চ ২০২০ সূত্র বনিকবার্তা, সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর এলাকার সোনাপুর কবরস্থান এলাকায় ভাড়া থাকতো আশরাফ আলম ও রোজিনা দম্পতি। আশরাফ মদনপুর এলাকার ইপিলিয়ন গ্রুপ সিকিউরিটি হিসাবে গার্ড হিসাবে কর্মরত ছিল। গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হন আশরাফ আলম (৬০) ও স্ত্রী রোজিনা বেগম (৩৫)। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আগুনে দগ্ধ আশরাফ আলমের শরীরের ৭০ শতাংশ পুড়ে গেছে এবং স্ত্রী রোজিনা বেগমের শরীরের ৫৬ শতাংশ পুড়ে গেছে। সোনারগাঁ পৌরসভার সোনারগাঁ জিআর ইনস্টিটিউশন এলাকা সংলগ্ন গ্রীণ চাইল্ড কিন্ডারগার্ডেন ভবনের পাশে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করে। তবে এতে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি।এলাকাবাসীর সহযোগিতায় সোনারগাঁ ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ১০ জুন ২০২০, সূত্র ইনকিলাব। সোনারগাঁও পৌরসভার জয়রামপুর গ্রামে বজ্রপাতে গ্যাসের রাইজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। ১০ জুন ২০২০, সূত্র ইনকিলাব, সোনারগাঁও পৌরসভার জয়রামপুর গ্রামের বাসিন্দা বানু রানী দাস ও তার ছেলে অপূর্ব দাস গ্যাসের আগুনে হয়ে দগ্ধ হয়ে মারাত্মকভাবে আহত হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। দুদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর ছেলে অপূর্ব দাসের মৃত্যুর পরের দিন মায়ের মৃত্যু হয়। ৩১ জানুয়ারী ২০১৬ সূত্র প্রথম আলো ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় যখন আবাসিক গ্যাসের তীব্র সংকট চলছে, তখন সোনারগাঁ উপজেলায় নতুন করে গ্যাসের অবৈধ সংযোগ স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। দুই বছর আগে এখানে অবৈধ গ্যাস-সংযোগের ব্যবসা শুরু হলেও মাঝখানে কিছুদিন এটা বন্ধ ছিল। এ উপজেলায় তিতাসের বৈধ গ্রাহক মাত্র সাত হাজার। অবৈধ সংযোগের সংখ্যা নিয়ে সুনির্দিষ্ট কিছু বলতে রাজি হননি তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের সোনারগাঁ আঞ্চলিক কার্যালয়ের কর্মকর্তারা। তবে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বলছেন, অবৈধ সংযোগ বৈধ সংযোগের কয়েক গুণ বেশি। সোনারগাঁর পৌর এলাকা ছাড়া ১০টি ইউনিয়নে ৪৬৬টি গ্রাম রয়েছে। বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যরা জানান, গত দুই বছরে উপজেলার অধিকাংশ গ্রামে গ্যাসের অবৈধ সংযোগ পৌঁছে গেছে। আবার কিছু সংযোগ বিচ্ছিন্নও করা হয়েছে। তবে তিতাস কর্তৃপক্ষের অভিযোগ, অবৈধ এসব গ্যাস-সংযোগ দেওয়ার সঙ্গে জড়িত আছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। তাঁদের কারণেই উচ্ছেদ অভিযান সফল হয় না। বারদী ইউনিয়নের ২১টি গ্রামে গ্যাস-সংযোগ দেওয়ার জন্য সড়কের পাশ দিয়ে পাইপ বসানো হচ্ছে। ছনপাড়া গ্রামের একাধিক বাসিন্দা জানান, বারদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জহিরুল হক ও সাবেক সদস্য রফিকুল ইসলামের লোকজন এ কাজ করছেন। এ জন্য গ্রাহক প্রতি ২০-৩০ হাজার টাকা অগ্রিম নেওয়া হয়েছে। ফুলদী গ্রামের বাসিন্দা আলী আজগর বলেন, গ্যাস-সংযোগ নিতে আমরা গ্রাহকপ্রতি ইতিমধ্যে ৩০ হাজার টাকা করে দিয়েছি। সাংবাদিক আসার খবর জানার পর সড়ক কেটে অবৈধ গ্যাস-সংযোগ নেওয়ার কাজ বন্ধের উদ্যোগ নেয় তিতাস কর্তৃপক্ষ। অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান জহিরুল হক বলেন, ‘আমি এসব অবৈধ গ্যাস-সংযোগ দেওয়ার সঙ্গে জড়িত নই।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »