শিরোনামঃ
ছাতকে নৌ-পথে চাঁদাবাজি বন্ধে থানায় মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত ত্রিশালে পৌর নৌকার মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব নবী নেওয়াজ সরকারের মত বিনিময় সোনারগাঁয়ে ব্রাদার্স ফাউন্ডেশনের প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে ইয়াং স্টারের জয়লাভ নরসিংদীতে আলোকবালীতে শীতার্তদের মাঝে কম্বলসহ সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ নরসিংদীতে শিবপুরে ডিবির হাতে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ ৪ জন গ্রেফতার শার্শায় অভিনব কায়দায় নবজাতক শিশু চুরি নরসিংদীর শিবপুরে শহীদ আসাদের ৫২তম মৃত্যুবার্ষিকী ২০ জানুয়ারী (বুধবার) পালিত ৩ বছর পেরিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পাঠকমেলা জীবননগরে আর নয় বাল্যবিবাহ-এস এম মুনিম লিংকন কয়েক ঘণ্টা পরেই বাইডেনের অভিষেক
সোনারগাঁও পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি

সোনারগাঁও পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি উন্নয়নের আশায় এলাকাবাসী


দেশের গর্জন ফটো

সোনারগাঁ প্রতিনিধি: নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের জয়রামপুর গ্রামের জেলে পাড়ায় উন্নয়নের কোন ছোঁয়া লাগেনি এ পর্যন্ত।পৌরসভা নির্বাচন আসলেই বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয় কিন্তু নির্বাচন চলে গেলে সব প্রতিশ্রুতি ভুলে যায় নির্বাচিত সদস্যরা। সরজমিনে ঘুরে দেখা যায় যে, জয়রামপুর জেলে পাড়ায় যাওয়ার মতো কোন সড়ক বা রাস্তা নেই । ৯নং ওয়ার্ড হয়ে ভট্টপুর রাস্তা দিয়ে টুকুন মেম্বারের বাড়ির পশ্চিম পার্শ্বে একমাত্র ভাঙ্গা জরার্জীর্ণ বাশেঁর সাঁকো দিয়ে পারাপার হতে হয় এ গ্রামের প্রায় এক থেকে দেড়শ পরিবারের । তাছাড়া জয়রামপুর জেলে পাড়া দিয়ে গোবিন্দপুর ও চক সোনারগাঁও গ্রামের অনেক মানুষও আসা যাওয়া করে। ২০১০ সালে সাবেক উপজেলা যুবলীগের সভাপতি গাজী মুজিবুর রহমানের অনুরোধে আওয়ামীলীগ সংসদ সমস্য আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত এলাকায় গরীব মানুষের কথা বিবেচনা করে সিমেন্টের পিলার উপর একটি কাঠের ব্রীজ তৈরি করে দেয় । কিন্তু কয়েক বছর যাবার পর সেটিও নষ্ট হয়ে যায়। পরবর্তীতে এলাকার বাসীর নিজ উদ্যোগে ঘরে ঘরে টাকা তুলে কাঠের সাঁকোর পরিবর্তে একটি বাঁশের সাঁকো তৈরি করা হয়। কিন্তু সেটির অবস্থাও নাজুক।এই সাঁকো দিয়ে ভট্টপুর, চান্দেরকির্ত্তী, ষোল্লপাড়া, বানীনাথপুর সহ কয়েকটি গ্রামের ছোট ছোট স্কুল পড়ুয়া শিশুরা ভট্টপুর মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাওয়া আসা করে। অনেক সময় ঝঁকিপূর্ণ এই বাশেঁর সাঁকো দিয়ে পারাপার হতে গিয়ে অনেক শিক্ষার্থী পরে গিয়ে মারাত্মত আহত হয়েছে । এছা্ড়াও অনেক বৃদ্ধ মানুষ ও নানা ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এছাড়াও শ্রী শ্রী গৌর নিতাই আখড়ার সামনে দিয়ে আরেকটি সাঁকো দিয়ে পারাপার হচ্ছে জয়রামপুর গ্রামের আরেক অংশের মানুষ । তাদেরও প্রানের দাবি জয়রামপুর গ্রামে রাস্তা হোক । তারা আর সাঁকো ব্যবহার করতে চায়না। উপজেলা পরিষদের মাত্র ৪০০ ফুট দূরত্ব জয়রামপুর জেলে পাড়া গ্রামের কিন্তু এখনো উন্নয়নের কোন স্পর্শ পায়নি গ্রামটি। ভট্টপুর মডেল স্কুলের পাশ দিয়ে একটি নতুন রাস্তা হয়েছে কিছুদিন আগে ।এলাকার মানুষের দাবি সেই রাস্তার সাথে সংযোগ করে খাল ঘেঁষে একটি রাস্তা যেন দ্রুত করে দেওয়া হয়। মাননীয় লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি হওয়ার পর থেকে ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে সোনারগাঁয়ে তাই অত্র এলাকার মানুষের দাবি অচিরেই যেন মাননীয় এমপি মহোদয় জয়রামপুর জেলে পাড়ায় একটি রাস্তা করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখবেন। জয়রামপুর গ্রামের বাসিন্দা বৈদ্যের বাজার এন.এ.এম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক ইংরেজী শিক্ষক মোতালেব স্যার বলেন, আমাদের এই গ্রামের রাস্তা না থাকায় আমরা বিভিন্ন সমস্যার মধ্যে পরেছি।তাছাড়া কেউ যদি মারা যায় তার লাশবাহী খাটটিও গ্রাম থেকে নেওয়া যায় না। এটা খুবই দুঃখের বিষয়। কালাপাহাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, সুবল স্যার বলেন, এই গ্রামের মানুষের কষ্টের কথা আশা করি উন্নয়ন বান্ধব এমপি মহোদয় আমলে নিবেন। তার মাধ্যমেই আমাদের এই গ্রামে একটি রাস্তা হবে সেই আশা রাখি। গত ২৫ বছর আগে মেঘনা নদীর বৈদ্যের বাজার অংশ ভাঙ্গার পর অনেক জেলে পরিবার এই জয়রামপুর গ্রামে বসত শুরু করে। গ্রামের প্রবীন জেলে সুবল মাঝি ও বৃন্দাবন মাঝি হতাশা নিয়ে বলে এতো বছর এ গ্রামে বাস করছি এখনো একটি রাস্তা হলো না। ২৫ বছর আগে যেমন সাঁকো দিয়ে গ্রামে এসেছি, এখনো সেই বাঁশের সাঁকো দিয়েই আসতে হয়। পৌরসভা শুধু নামেই কাজে না । এ বিষয়ে ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফারুক আহম্মেদ তপন এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমি আপনাদের কথা মেয়র সাহেব কে বলেছি , ভট্টপুর রাস্তর কাজ শুরু হলে ব্রীজের কাজও ধরা হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »