সৈয়দপুরে সবনিম্ন তাপমাত্রা ৬ দশমি ৫ ডিগ্রি

সৈয়দপুরে সবনিম্ন তাপমাত্রা ৬ দশমি ৫ ডিগ্রি


ফটো-সংগৃহীত

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: ঘন কুয়াশা আর উত্তরের হিমেল হাওয়ায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে উত্তরের জনপদ নীলফামারী।

গতকাল (৩১ জানুয়ারী) রবিবার সৈয়দপুরে এবারের শীত মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা (৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি) বিরাজ করায় জবুথবু হয়ে পড়েছে জনজীবন।

চরম বিপাক পড়েছে শ্রমজীবী, নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া ও ছিন্নমূল মানুষেরা। সকাল থেকে কোন বিমান উঠানামা করেনি। ফলে বিমানযাত্রীরা বিড়ম্বনায় পড়েছে।

ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষার পরও শিডিউল স্থগিত হওয়ায় ফিরে যেতে হচ্ছে তাদের। সড়ক ও রেলপথেও যানবাহনগুলো হেডলাইট জ্বালিয়ে ধীরগতিতে চলাচল করছে।

মাঝারি শৈত্যপ্রবাহের ফলে প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হচ্ছে না। এতে শহরে মানুষ-জনের চলাচল কমে গেছে। ছিন্নমূল মানুষ খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারনের চেষ্টা করছে।

ইরি-বোরোর আবাদ যাতে বিলম্ব না হয়, সেজন্য চাষীরা শীত উপেক্ষা করে মাঠে নামলেও অবর্ণনীয় দূর্ভোগে পোহাচ্ছে। কনকনে ঠাণ্ডায় কাদাপানিতে কাজ করে অনেকে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

শীতজনিত শ্বাসকষ্ট, ডায়েরিয়া ও নিউমোনিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে গত ৫ দিনে প্রায় ২ শতাধিক রোগী ভর্তি হয়েছে।

এছাড়া কমিউনিটি ক্লিনিক ও ডাক্তারের চেম্বারগুলোতে রোগীর ভীড় বৃদ্ধি পেয়েছে। বিগত কয়েকদিন থেকে ঘন কুয়াশায় চারপাশ আচ্ছন্ন থাকলেও তাপমাত্রা ছিল ১২ থেকে ১৭ ডিগ্রি পর্যন্ত।

কিন্তু হঠাৎ করে তাপমাত্রা একেবারে নিচে নেমে যাওয়ায় মাঘের শীতে বাঘ কাঁপা অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

সৈয়দপুর বিমানবন্দর আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘন্টায় এ অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৬ দশমিক ৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস। ঘন কুয়াশার কারনে সকাল ১১টায় দৃষ্টিসীমা ছিল ৬০০ মিটার।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »