শিরোনামঃ
ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতিতে টিকা কার্যক্রম ব্যাহত নরসিংদীতে শিবপুরে গ্রাম্য কবিরাজের গলাকাটা লাশ উদ্ধার ব্রাহ্মণবাড়িয়া কলাগাছের গোড়ায় পাওয়া শিশুটির মা শিক্ষিকা পারভীন নরসিংদীতে স্বাস্থ্য সহকারীদের অব্যাহত কর্মবিরতির কারণে টিকা না পেয়ে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে শিশুরা নরসিংদীতে আশিরনগরের সিএসজি স্ট্যান্ডে চাঁদাবাজির সত্যতা কিছুটা স্বীকার করলেন নেতারা বিএনপি ক্ষমতায় যেতে চোরাগলি খুঁজছে: কাদের প্রতিবন্ধীদের আলাদাভাবে যত্ন নিবেন: ইকরামুল হক টিটু বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য শুধু প্রতিকৃতি নয় বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের মানুষকে হতাশ করেছে: জিএম কাদের ফের করোনার নিয়ন্ত্রণ হারাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, মৃত্যুতে রেকর্ড
সেলফি তুলতে চাওয়ায় ভক্তের ফোন ছুড়ে ফেললেন

সেলফি তুলতে চাওয়ায় ভক্তের ফোন ছুড়ে ফেললেন সাকিব!


ফটো-সংগৃহীত

বিনোদন রিপোর্টঃ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে সামনে দেখে ভক্তদের আবেগপ্রবণ হওয়া অস্বাভাবিক কিছু নয়। কেননা, বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় তারকা, বড় বিজ্ঞাপন যে তিনিই।

স্বাভাবিকভাবেই তাকে সামনে দেখে আবেগ ধরে রাখতে পারেননি এক ভক্ত। সাকিবকে দেখে তাই দৌড়ে গিয়েছিলেন ছবি তুলতে। অনুমতি না নিয়ে মুখের সামনে সেলফির ভঙ্গিমায় ফোন তুলতেই রেগে গেলেন সাকিব।

শুধু রেগেই যাননি, উগ্র মেজাজে সেই ভক্তের ফোন কেড়ে নিয়ে ছুড়ে ফেলে দেন এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার! তার এই আচরণে ব্যথিত, মর্মাহত, ক্ষুব্ধ শত শত ভক্ত।

এই ঘটনায় বেনাপোলে সাকিবপ্রেমীদের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে বিরূপ প্রতিক্রিয়া। ঘটনাটি ঘটেছে বেনাপোল চেকপোস্ট আন্তর্জাতিক ইমিগ্রেশন ভবনে।

আইসিসির নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা সাকিব বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) দুপুরে বেনাপোল বন্দর ইমিগ্রেশন দিয়ে ভারতে যান কলকাতায় সন্ধ্যায় একটি পূজা মন্ডপে কালীপূজা উদ্বোধন করতে।

ভারতে যাওয়ার পথে বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের মধ্যে এক ভক্ত তার সঙ্গে ছবি তুলতে চাইলে ফোন কেড়ে নিয়ে ফেলে দেন তিনি। সেক্টর মোহাম্মদ নামের সেই ভক্ত বেনাপোল চেকপোস্টের একটি পরিবহনে চাকরি করেন। তিনি বলেন, ‘আমি সাকিব আল হাসানের একজন ভক্ত।

তাকে সামনাসামনি দেখে নিজেকে আর সামাল দিতে পারিনি। এজন্য তার সঙ্গে একটা ছবি তুলতে গিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি আমাকে ছবি তুলতে না দিয়ে উগ্র মেজাজে আমার হাত থেকে ফোন কেড়ে নিয়ে ছুড়ে ফেলে দিয়েছেন। এতে আমার ফোনটি ভেঙে নষ্ট হয়ে গেছে।

সেলফি তোলা কি আমার অপরাধ? আমি খুব দু:খ ও ব্যথা পেয়েছি। আমার সাথে এমন আচরণ তিনি কেন করলেন, আমি জানি না।’ বেনাপোলের একজন সংবাদকর্মী রাসেল হোসেন জানান, আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম।

শুধু ভক্তের মোবাইল ফোন ছুড়ে ফেলা নয়, সংবাদ কর্মীদের সঙ্গে তিনি কোনও কথাই বলেননি। একজন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের আচরণ এমন হতে পারে না। সুত্র: একুশে টিভি অনলাইন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »