শিরোনামঃ
ভারতের দিল্লিতে নিযুক্ত হাই-কমিশানের প্রতিনিধি দলের বেনাপোল বন্দর পরিদর্শন নরসিংদীর শিবপুরে উপজেলা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ইতিহাসে এই প্রথম নারীদের নেতৃত্বে দূর্গাপূজার আয়োজন যশোরে নরসিংদীর রায়পুরায় ছাত্রলীগ সভাপতির বিরদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ,ভিকটিম উদ্ধার স্বাধীনতার ৫০ বছরেও তালিকায় ঠাঁই মেলেনি মণিরামপুরের ৫ শহীদ মুক্তিযোদ্ধার ৫ ভাইয়ের সঙ্গে তরুণীর সংসার রাজাপুর থেকে চুরি হওয়া ২টি গরু বরিশাল থেকে উদ্ধার চোর চক্রের সর্দার আটক ছাতকে নৌ-পথের ছিনতাইকারী ইদন মিয়া গ্রেফতার টানা বর্ষণে বিপর্যস্ত বরগুনাসহ উপকূল ঠাকুরগাঁওয়ে রশিক রায় জিউ মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি
যেভাবে ভরাট হচ্ছে মাড়াদেওরা খাল খনন না

যেভাবে ভরাট হচ্ছে মাড়াদেওরা খাল খনন না হলে আর দেখা যাবে না এর চিত্র


ফটো-তপু রায়হান রাব্বি

তপু রায়হান রাব্বি ফুলপুর, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ফুলপুরে ভাইটকান্দি ইউনিয়নের মাড়াদেওড়া গ্রামের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া গুরুত্বপূর্ণ মাড়াদেওরা খালটি এখন বিলীন হওয়ার পথে। খালের তলদেশ ভরাট হয়ে গেছে।যা আর একবছর গেলে এর কোন চিহ্ন থাকবে না। সেইসাথে দখল হয়ে যাচ্ছে খালের দু’পাশ। খালের বুকে চলছে চাষাবাদ। এক সময় এই খালটি ছিল এলাকার অনেক মানুষের জীবিকার উৎস। ভরাট হয়ে যাওয়ায় বছরের বেশিরভাগ সময়ই খালে পানি থাকে না। খালের কোন কোন জায়গায় মাছের পুকুরও করা রয়েছে। একসময় মাড়াওদেরা, শিববাড়ী, চাঁনপুর, মোকামিয়া, বালিচান্দা গ্রামের উপচে পড়া পানি এই খাল দিয়ে প্রবাহিত হয়ে বালিচান্দা বিলে পড়তো। এতে বিপুল এলাকা জলাবদ্ধতা থেকে মুক্ত থাকতো। সারা বছর নাব্যতার কারণে তীব্র গরমে এই খালে গ্রামের ছোট ছেলেমেয়েরা সাঁতার কাটতো। সময়ের বিবর্তনে খালটি ভরাট হয়ে যাওয়ায় এমন দৃশ্য এখন আর চোখে পড়ে না। তৎকালীন জিয়াউর রহমানের আমলে এই খালটি খনন করা হয়েছিল। এরপর থেকে এই খালটি বাঁচানোর জন্য কোন সরকারই এগিয়ে আসেনি। এ বিষয়ে ভাইটকান্দি ইউনিয়নের মাড়াদেওরা গ্রামের হয়যত আলী জানান, মাড়াদেওড়া খালটি ভরাট হওয়ায় বর্ষাকালে অল্পতেই খালটি উপচে পড়ে। পর্যাপ্ত পানি প্রবাহের সুযোগ না থাকায় মাড়া বিলের কচুরিপানা এই খালের মাধ্যমে পার্শ্ববর্তী ফসলের জমিতে ছড়িয়ে পড়ে। এতে ফসলের ব্যাপক তিসাধিত হয়। এতেও মাড়া বিলটি কচুরীপানায় ঢাকা থাকে। এক সময় মাড়াদেওড়া খালটি ৫০ থেকে ১০০ ফুট ফুট প্রশস্ত ছিল। বর্তমানে তা সংকোচিত হয়ে ৫ থেকে ১০ ফুটে দাঁড়িয়েছে। অনেক জায়গায় খাল দখল করে মাছের পুকুর করেছেন প্রভাবশালীরা। এই খালের জমি পুনরুদ্ধার করে খনন করা হলে মাছের উৎস হিসাবে আবারো ফিরে পাবে পুরনো ঐতিহ্য। সেইসাথে এলাকার মৎস্যজীবীদের আয়ের সুযোগ সৃষ্টি হবে। ভাইটকান্দি মাড়াদেওরা গ্রামের আবুল খায়ের বাদল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নানা উন্নয়নমূলক কাজ করে আসছেন। তাই বাংলাদেশ সরকারের গৃহায়ন গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহম্মেদ এমপি যদি আমাদের এই মাড়াদেওরা খাল খননের দিকে একটু নজর দেন তাহলে ভাইটকান্দি ইউনিয়ন ও সিংহেশ্বর ইউনিয়নে অনেক লোকের উপকার হত। এ ব্যাপারে ভাইটকান্দির ইউপি চেয়ারম্যান আলাল উদ্দিন আহাম্মদ বলেন, এই খালটি পুনরায় খনন করা হলে বোরো আবাদে এলাকার চাষীরা ব্যাপকভাবে উপকৃত হবে। সেই সাথে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। অনেকেই এ খালের মাছ ধরে জীবিকা অর্জন করতে পারবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »