শিরোনামঃ
নরসিংদীতে ঘোড়াশালে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলামের দাফন সম্পন্ন বাপ্পারাজ-সম্রাটসহ পরিবারের ছয় সদস্য করোনায় আক্রান্ত হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন রুহুল কবির রিজভী চলমান কাজ শেষ হলে পরবর্তী কাজ পাবেন ঠিকাদার: প্রধানমন্ত্রী বাবার সেবা করতে গিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ফারুকের মেয়ে পাইকগাছায় প্রতারক চ্ক্র গ্রুপের প্রতারনা ও মানব পাচার আইনে মামলা স্বামী-স্ত্রী গ্রেফতার পাইকগাছায় ছাত্রনেতাসহ ৩ জনে অতিরিক্ত মদ‍্যপানে মৃত্যু-১ রূপগঞ্জে উপজেলা ছাত্রলীগের আলোচিত মুখ ইমন নরসিংদীতে আরও ৫ জন করোনায় আক্রান্ত, মোট শনাক্ত ২৫৯৫ ঠাকুরগাঁওয়ে আদিবাসীদের ৩ দফা দাবিতে মানববন্ধন
ভারতীয় ভয়ংকর মাদকে আসক্ত যুবসমাজ সাতক্ষীরায় পুলিশের

ভারতীয় ভয়ংকর মাদকে আসক্ত যুবসমাজ সাতক্ষীরায় পুলিশের অভিযানে আটক-১৬ 


ফটো-সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: হটাৎ সাতক্ষীরায় পুলিশের মাদক বিরোধী সাড়াশি অভিযানে মাদকসেবী সন্দেহে ৩৮ জন যুবককে আটকের পর ডোপ্ট টেস্টে ১৬ জন যুবক ধরাশায়ী। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে সন্ধা পর্যন্ত ভোমরা স্থলবন্দর এলাকার মাদক স্পট গুলোতে সাড়াশি অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে পুলিশ। সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে,পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান (পিপিএম) এর নির্দেশনা এবং সার্বিক তত্ত্বাবধানে সদর উপজেলার ভোমরা এলাকায় সদর থানা পুলিশ এবং সাতক্ষীরা পুলিশ লাইন্স এর ২০ জন সদস্যের সমন্বয়ে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাতক্ষীরা সদর সার্কেল মির্জা সালাহউদ্দিন এর নেতৃত্বে পরিচালিত এ অভিযানে অন্যান্যেদের মধ্যে ছিলেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান,পুলিশ পরিদর্শক (অপা:) বিপ্লব সরকার,এসআই প্রদীপ কুমার সানা,এসআই মানিক কুমার সাহা, এসআই হাবিব, এসআই অহিদুল সহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা। এছাড়া সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন কার্যালয় এর মেডিকেল অফিসার জয়ন্ত সরকারও এসময় উপস্থিত ছিলেন। নির্ভর যোগ্যসূত্র টি আরও জানায়,সাতক্ষীরা জেলার বিভিন্ন থানা ও অন্যান্য জেলার মাদকসেবীরা ভোমরার স্থলবন্দর ও সীমান্তবর্তী এলাকায় এসে মাদক সেবন করে আবার নিজ নিজ এলাকায় ফিরে যাচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে এ অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। এসময় বাহ্যিক লক্ষণ বিবেচনায় এবং উপস্থিত ডাক্তারের পরামর্শে মোট ৩৮ জনকে মাদকসেবী সন্দেহে ডোপ টেস্ট এর জন্য সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। ডোপ টেস্ট শেষে ১৬ জনের ক্ষেত্রে রিপোর্ট পজিটিভ এবং ২২ জনের ক্ষেত্রে রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। মাদকাসক্ত প্রমাণিত ১৬ জন এর নিকট যে সমস্ত মাদক ব্যবসায়ী মাদক বিক্রি করেছিল তাদেরকে শনাক্তের কাজ চলছে। এ সংক্রান্তে আটক মাদকসেবীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ তে মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানাযায়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »