শিরোনামঃ
কওমী মাদরাসা লকডাউনের আওতামুক্ত রাখার দাবি হেফাজতের টাঙ্গাইলে দুই সন্তানের জননী মল্লিকা বেগমের আত্মহত্যা নরসিংদীতে করোনা মোকাবেলায় সংবাদকর্মী রুদ্র এর পক্ষ থেকে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ জনকণ্ঠ ভবনের মূল ফটকে তালা, ভবনের সামনের রাস্তায় অবস্থান নিয়েছেন সাংবাদিকরা শার্শায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তার খামখেয়ালীপোনায় ২য় ডোজ টিকা নিয়ে বিপাকে ভূক্তভোগীরা বার্সাকে হারিয়ে শীর্ষে রিয়াল চলমান করোনা নিষেধাজ্ঞা ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে মিয়ানমারের বাগো শহরে সামরিক বাহিনীর গুলিতে নিহত ৮০ ছাড়িয়েছে গজারিয়ায় জাটকাবাহী ট্রলার ও জাটকা সহ ৪ জন আটক, কারাদণ্ড করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেননি খালেদা জিয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবসহ সারা দেশে হেফাজতের অগ্নিসংযোগ ও

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবসহ সারা দেশে হেফাজতের অগ্নিসংযোগ ও ভাংচুরের প্রতিবাদে কসবা প্রেসক্লাবের মানববন্ধন


ফটো-লোকমান হোসেন পলা

লোকমান হোসেন পলা: ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবসহ সারা দেশে হেফাজত ইসলামের নেতাকর্মীরা অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর, তান্ডব লিলা ও সাংবাদিকদের উপর আক্রমেনর প্রতিবাদে আজ রোববার বেলা ১১টায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কসবা প্রেসক্লাবের উদ্যোগে কসবা স্বাধীনতা চত্ত্বরে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এতে কসবা প্রেসক্লাবের সাংবাদিক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোকজন অংশ নেয়।

বেলা ১১টা থেকে শুরু করে প্রায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে কসবা প্রেসক্লাব সভাপতি মো. আবদুল হান্নানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, কসবা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক এম.জি হাক্কানী, স্বাধীন বাংলা ছাত্রসংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব বীরমুক্তিযোদ্ধা এম.এইচ শাহআলম, মুক্তিযোদ্ধা এ.বি.এম শাহজাহান, কসবা টি.আলী কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. আবুল কালাম আজাদ, মোহনা টেলিভিশনের কসবা প্রতিনিধি ও পাক্ষিক অপরাধ পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক খ.ম. হারুনুর রশিদ ঢালী, কসবা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মো. শাহআলম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক নেপাল চন্দ্র সাহা, কসবা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সোহরাব হোসেন, অর্থ সম্পাদক মো. অলিউল্লাহ সরকার প্রমুখ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন জামিসহ বেশ কয়েকজন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়ে বক্তারা বলেছেন, হেফাজত ইসলামের সাথে সংযুক্ত হয়ে যারা এ সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত রয়েছে তাদেরকে খুজেঁ বের করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী করেছেন।

হেফাজত ইসলামের নেতাকর্মীরা ২৬ মার্চ থেকে শুরু করে ২৮ মার্চ হরতাল পালনের নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিভিন্ন সরকার অফিস আদালত, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ণ স্থানে হামলা চালিয়ে রেলওয়ে স্টেশন, উপজেলা ভূমি অফিস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা আল-মামুন সরকারের বাস ভবনসহ আরো আওয়ামলীগ ও অংগ সংগঠনের নেতাকর্মীদের বাড়ি-ঘরসহ বিভিন্ন গুরুত্বপর্ণ স্থাপনা, বঙ্গবন্ধুর ভাসকার্য ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

তান্ডব লিলায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন জামিসহ অনেক সাংবাদিক, পুলিশ ও সাধারণ লোকজন আহত হয়েছেন।

এ সকল ঘৃণকাজে তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন। যারা এ সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত রয়েছে, তাদেরকে তদন্ত করে খুজেঁ বের করে আইনের আওতায় এনে শান্তির দাবী জানিয়েছেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »