বোরকা পরিয়ে নাবালিকার জমি লেখে নিলেন সুদখোর

বোরকা পরিয়ে নাবালিকার জমি লেখে নিলেন সুদখোর মহাজন!


ফটো-সংগৃহীত

গর্জন ডেস্কঃ সুদখোর মহাজন সেলিম ওরফে সেলু ডাক্তার! এবার তার বিরুদ্ধে গুরুত্বর অভিযোগ এনেছেন এক বিধবা নারী। জানিয়েছেন, সুদখোর এই মহাজন বোরকা পরিয়ে তার নাবালিকা নাতনীর জমি লিখিয়ে নিয়েছেন।

ঘটনার নেপথ্যে জানা গেছে, ওই বিধবা নারী সুদখোর মহাজন সেলিম ওরফে সেলু ডাক্তারের কাছ থেকে ১ লাখ টাকার সুদ নিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি আড়াই লাখ টাকা পরিশোধ করার পরও তার কাছে আরও পাঁচ লাখ টাকা পান বলে দাবি করেন তিনি।

এই প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের ওই বিধবা নারী বলেন, বাপু সেলু ডাক্তারের বউয়ের কাছ থেকে ১লাখ টাকা স্ট্যাম্প কইরা সুদে আনছিলাম। প্রথম মাসে তাকে সুদ পরিশোধ করা হয়েছে পাঁচ হাজার টাকা, এর পর থেকে দশ হাজার টাকা কইরা। এই পর্যন্ত দুই বছরে তাকে আড়াই লাখ টাকা সুদ পরিশোধ করা হয়েছে।

তবে সেইদিন দলিল করার সময় সুদখোর মহাজন দাবি তুলেছেন, আমার কাছে নাকি এখনও ৫ লাখ টাকার উপরে পান তিনি।

বিধবার কাছে মহাজনের ভাষ্য, তোমাকে যেই টাকা দিয়েছি, তা ৫ লাখ ৭০ হাজারে গিয়া ঠেকেছে। পরে এই কথা শুনে আমি নিরুপাই হইয়া জমি রেজিস্ট্রি কইরা দিছি।

বিধবা অভিযোগ করে আরও বলেন, এই জমি (ভিটেবাড়ি) আমার নাবালক নাতনীর নামে দুই আড়াই বছর আগে লেইখা দিছিলাম। পরে নাতনীরে বোরকা পরাইয়া কালামপুর নিয়া গেছে সেলু ডাক্তার ও তার বউ। পরে আমার নাতনীর কাছ থেকে আড়াই শতাংশ জায়গা (জমি) লেইখা নিছে সে।

এ বিষয়ে ওই নাবালিকা নাতনী সুমাইয়া আক্তার বলেন, আমাকে বোরকা পরাইয়া মুখ ঢেকে অফিসারের (সাব-রেজিস্টার) সামনে নিয়া গেছে। সেলু ডাক্তার ও তার বউ আমারে শিখাই দিছে, যদি জিজ্ঞেস করে জমি কারে লিখে দিচ্ছো; তাহলে আমি স্যারকে বলবো আমার দাদিরে। পরে আমারে জিজ্ঞাস করলে; আমি সেইটাই বলেছি।

এদিকে সুদখোর মহাজন সেলিম ওরফে সেলু ডাক্তার এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, জমি বিক্রি করার কথা বলেই আমার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে সে। পরে এ কথা বলে নানারকম তালবাহানা মূলক কথা বলতে থাকে। তবে পরিশেষে টাকা সুদে লাগানোসহ নাবালিকার নিকট হইতে জমি লিখে নেওয়ার কথা স্বীকার করেন মহাজন।

স্থানীয়রা জানান, সেলু ডাক্তার তার আপন ভাতিজা স্থানীয় ইউপি সদস্যের দাপট দেখিয়ে এলাকায় অবৈধ উপায়ে সুদি ব্যবসা করে রাতারাতি অর্থবিত্তের মালিক হয়েছেন।

এলাকাবাসী আরো জানান, এই সুদখোর সেলু ডাক্তারকে আইনের আওতায় এনে সমাজের নিরিহ মানুষদের বাঁচাতে সকলের সহযোগীতা প্রয়োজন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »