বিয়ে হওয়ার আগ পর্যন্ত এই বাড়ি থেকে

বিয়ে হওয়ার আগ পর্যন্ত এই বাড়ি থেকে যাব না


ফটো-সংগৃহীত

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের সখীপুরে এক কলেজছাত্রী বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে চার দিন ধরে অবস্থান নিয়েছেন। এ ঘটনার পর থেকে প্রেমিক ও তার বাবা-মা পলতাক রয়েছেন। বিয়ের শর্ত দিয়ে বিয়ে না করায় গত বৃহস্পতিবার প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেন তিনি।

জানা গেছে, প্রেমিকের বাড়িতে কেউ না থাকায় কলেজছাত্রী প্রেমিকের ফুফার তত্ত্বাবধানে রয়েছেন। প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেওয়া কলেজছাত্রীর বাড়ি ময়মনসিংহের ভালুকায়। সখীপুর উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সেলিম জানান, ছেলে ও মেয়ে দুজনই ময়মনসিংহের ভালুকায় একটি কলেজে একসঙ্গে পড়ালেখা করেন। ছয় মাস ধরে তাদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

তিনি আরও জানান, মাসখানেক আগে ছেলেটি রাতের বেলায় ওই কলেজছাত্রীর বাড়িতে দেখা করতে গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে আটক হন। বিয়ের শর্ত দিয়ে ছেলের বাবা সেখান থেকে ছেলেকে ছাড়িয়ে নেন।

দুই পরিবার মিলে গত পয়লা ফেব্রুয়ারি বিয়ের দিনও ধার্য করেন। ওইদিন মেয়ের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন করা হয়। ছেলের পক্ষ থেকে ১০-১২ জন মেয়ের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানে গেলেও ছেলে ও তার বাবা উপস্থিত না হওয়ায় বিয়ে-রেজিস্ট্রি (কাবিন) হয়নি। এ বিষয়ে ওই ছাত্রী বলেন, ‘ছেলে ও তার বাবা আমাদের সঙ্গে দুবার প্রতারণা করেছেন। আমি সম্মান বাঁচাতে বাধ্য হয়ে এ বাড়িতে এসেছি।

বিয়ে হওয়ার আগ পর্যন্ত আমি এই বাড়ি থেকে যাব না। কলেজছাত্র প্রেমিকের বাবা বলেন, ‘স্ত্রীকে নিয়ে আমি ময়মনসিংহের একটি বেসরকারি হাসপাতালে রয়েছি। বহুরিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য রাহেলা আক্তার বলেন, ‘মেয়েটিকে ছেলের ফুফার জিম্বায় ছেলের বাড়িতেই রাখা হয়েছে। ছেলের বাবা-মা বাড়িতে এলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »