বাইডেন প্রশাসনে কাশ্মীরি-আমেরিকান দুই নারী

বাইডেন প্রশাসনে কাশ্মীরি-আমেরিকান দুই নারী


দেশের গর্জন ফটো

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দুই ভারতীয়-আমেরিকান নারীকে গুরুত্বপূর্ন দায়িত্ব দেয়া হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তি প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসনে। সামিরা ফাজিলি এবং আইশা শাহ নামের এই দুই নারীর জন্ম ভারতীয় কাশ্মীরে।

সামিরা ফাজিলিকে হোয়াইট হাউসের জাতীয় অর্থনৈতিক কাউন্সিলের উপপরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তিনি জাতীয় অর্থনৈতিক কাউন্সিলে অর্থনৈতিক নীতি নির্ধারণের প্রক্রিয়া সমন্বয় করে জো বাইডেনকে মার্কিন অর্থনৈতিক নীতি সম্পর্কে পরামর্শ দেবেন।

অপরদিকে, হোয়াইট হাউসের অফিস অব ডিজিটাল স্ট্র্যাটেজির পার্টনারশিপ ডিরেক্টর পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে আয়েশা শাহকে। তিনি ডিজিটাল স্ট্র্যাটেজি ডিরেক্টর রব ফ্লেহার্টির সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করবেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম জি নিউজের খবরে জানানো হয়েছে, ফাজিলির বাবা-মা চেয়েছিলেন তাদের মেয়েকে চিকিৎসক বানাবেন। তবে এখন বাইডেন প্রশাসনে জায়গা পাওয়া নিয়ে তার পরিবার উচ্ছসিত সময় পার করছে।

তার পরিবার জম্মু-কাশ্মীরের শ্রীনগরে থাকে। তার চাচা রউফ ফাজিলি বলেন, আমরা অত্যন্ত গর্বিত। কাশ্মীরের সকল মানুষ গর্বিত। এটি আমাদের সকলের জন্যই গর্বের। কাশ্মীরের সংস্কৃতিতে সে বড় না হলেও কাশ্মীরের প্রতি তার টান রয়েছে বলে জানান তার চাচা। সর্বশেষ ২০০৭ সালে ফাজিলি ভারতে এসেছিলেন। সামিরা ফাজিলি তার জীবনে সাংস্কৃতিক ও খেলাধুলায় অত্যন্ত সক্রিয় ছিলেন। তিনি গ্লাইডিং, সাতার ও টেনিসে অত্যন্ত পারদর্শী। একইসঙ্গে ঘুরে বেড়ানোও তার অন্যতম প্রধান শখ।

গত ডিসেম্বরে ভারতের কাশ্মীরি বংশোদ্ভুত আরেক নারী আইশা শাহকে হোয়াইট হাউসের অফিস অব ডিজিটাল স্ট্র্যাটেজির পার্টনারশিপ ডিরেক্টর হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের লুইজিয়ানায় বেড়ে উঠেছেন। এর আগে বাইডেন-হ্যারিস ক্যাম্পেইনে ডিজিটাল পার্টনারশিপ টিমের পরিচালক ছিলেন। তিনি বর্তমানে স্মিথসোনিয়ান ইনস্টিটিউশনের অ্যাডভান্সমেন্ট স্পেশালিস্ট হিসেবে কাজ করছেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »