শিরোনামঃ
টাঙ্গাইলে দুই সন্তানের জননী মল্লিকা বেগমের আত্মহত্যা নরসিংদীতে করোনা মোকাবেলায় সংবাদকর্মী রুদ্র এর পক্ষ থেকে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ জনকণ্ঠ ভবনের মূল ফটকে তালা, ভবনের সামনের রাস্তায় অবস্থান নিয়েছেন সাংবাদিকরা শার্শায় স্বাস্থ্য কর্মকর্তার খামখেয়ালীপোনায় ২য় ডোজ টিকা নিয়ে বিপাকে ভূক্তভোগীরা বার্সাকে হারিয়ে শীর্ষে রিয়াল চলমান করোনা নিষেধাজ্ঞা ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে মিয়ানমারের বাগো শহরে সামরিক বাহিনীর গুলিতে নিহত ৮০ ছাড়িয়েছে গজারিয়ায় জাটকাবাহী ট্রলার ও জাটকা সহ ৪ জন আটক, কারাদণ্ড করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেননি খালেদা জিয়া নরসিংদীতে দরিদ্র পরিবারের মধ্যে আর্থিক সহায়তা প্রদান
ফুলপুরে শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে বেত্রাঘাতের অভিযোগ

ফুলপুরে শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে বেত্রাঘাতের অভিযোগ


ফটো-তপু রায়হান রাব্বি

তপু রায়হান রাব্বি, ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ফুলপুরে শিক্ষকের নির্যাতনে আহত এক ছাত্রী ২২ দিন ধরে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে। জানা যায়, ফুলপুর সদর ইউনিয়নের কাকড়া গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী শেফালী বেগম স্থানীয় ভাবে দীর্ঘদিন ধরে ভাড়াটিয়া জায়গায় স্কুল পরিচালনা করে আসছেন। কাকড়া জামে মসজিদের ইমাম মোসলেম উদ্দিনের মেয়ে ময়মনা আক্তার (৯) তার বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে লেখপড়া করে।

পড়া না পারায় গত ১৫ ফেব্রুয়ারি শিক্ষক শেফালী বেগম ময়মনা আক্তারকে অমানবিক নির্যাতন করেন।

পরিবারের লোকজন আহত ছাত্রীকে প্রথমে ফুলপুর ও পরে ময়মনসিংহ হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা করান। বেত্রাঘাতে ছাত্রীর হাটুর উপর মারাত্বক জখম হওয়ায় আজও সে হাটতে পারছেন না।

ছাত্রীর পিতা মোসলেম উদ্দিন জানান, চিকিৎসকরা জানিয়েছেন বেত্রাঘাতে ভিতরে মারাত্বক ইনফেকশান হয়েছে। মেয়ে এখনও ব্যথায় ঘুমাতে বা হাটতে পারে না।

এরআগেও শিক্ষক আমার মেয়ের হাতে বেত্রাঘাত করে মারাত্বক জখম করেছিল।

সে ব্র্যাকের নামে অবৈধ ভাবে একাই ৩টি স্কুল পরিচালনা করছে। ছাত্র প্রতি মাসিক ৩০০ টাকা করে বেতন নিয়ে থাকে। এ ব্যাপরে শিক্ষক শেফালী বেগমের কাছে জানতে চাইলে তিনি মুঠোফোনে কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »