শিরোনামঃ
সোনারগাঁয়ে পানি নিস্কাশনের যায়গায় ময়লার ভাগার, দেখার কেউ নেই ছাতকে উত্যেক্তকারিদের হামলায় নারী আহত: থানায় অভিযোগ শিবপুর উপজেলার বি.বি.এস ইটভাটার কাজকর্ম চালানো হচ্ছে শিশু শ্রমিক সোনারগাঁয়ে হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের চার দফা কর্মবিরতি পালন রিষাবাড়ীতে নদীতে ঝাপিয়ে পড়া ৩ জুয়াড়ির লাশ উদ্ধার, দায়িত্ব অবহেলায় ২ পুলিশ প্রত্যাহার, আটক ২ ঢাকা থেকে পায়রাবন্দর পর্যন্ত রেললাইন নিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রী প্রাইভেট ও সরকারি হাসপাতাল মিলেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলানো হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শাসন দীর্ঘায়িত করার ইচ্ছা সরকারের নেই: কাদের দেশরক্ষার জন্য নদীরক্ষা অপরিহার্য: তথ্যমন্ত্রী নরসিংদীতে আশিরনগর সিএনজি স্ট্যান্ডে স্টিকার ব্যবহার করে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ
পঞ্চগড়ে পেটে লাথি মেরে গর্ভপাতের অভিযোগ

পঞ্চগড়ে পেটে লাথি মেরে গর্ভপাতের অভিযোগ


ফটো-সংগৃহীত

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড় সদর উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিবেশীর স্ত্রীর পেটে লাথি মেরে গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি সদর উপজেলার ১নং অমর খানা ইউনিয়নের ঠুটাপাখুরী এলাকায় ঘটে। ঘটনার সময় আয়শা (১৪) নামের এক স্কুল ছাত্রী মুঠোফোনে মারধরের ছবি ধারণ করে।

ঘটনার পর (৬ নভেম্বর শুক্রবার) নাজমা বেগমের (২৬)স্বামী আমিনার রহমান বাদী হয়ে সদর থানায় সয়বুর রহমান (৫৫) সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। যাহার নং-৫।

এজাহার ও সরেজমিন সূত্রে জানা গেছে, জমি নিয়ে সয়বুর ও আমিনারের পরিবারে মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। তারই পেক্ষিতে গত শুক্রবার (৫ নভেম্বর) দুপুরে নাজমা বেগম বাড়ীর পাশে টিউবওয়েলের ময়লা পানির ড্রেন পরিস্কার করতে গেলে, সয়বুরসহ তার পরিবারের লোকজন দলবদ্ধভাবে আসে।

কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে নাজমা বেগমের হাতে কৃষি কাজে ব্যবহৃত বেধা সয়বুর ছিনিয়ে নিয়ে প্রথমে মাথায় পরে শরীরে বেধরক মারে। পরে ওই মহিলার তলপেটে বার বার লাথি মারলে মহিলা অচেতন হয়ে ব্লেডিং শুরু হয়।

পরিবারের সদস্যরা উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথেই ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বার গর্ভপাত ঘটে। পরে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা শেষে রোববার ছারপত্র নিয়ে বাড়ি ফিরেন।

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক ডা.সিরাজউ-দ্দৌলা পলিন জানান, এটাতো পুলিশ কেস, পুলিশের রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত জানাযায় না। তবে অবশ্যই রেজিষ্টারে ইনজুরি লেখা থাকবে।

পঞ্চগড় সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক ( তদন্ত )মো. জামাল হোসেন জানান, লাথি মেরে গর্ভপাতের ঘটনায় মামলা হয়েছে। আমরা আসামীকে আটকের অভিযান চালিয়ে যাচ্ছি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »