নরসিংদীতে জৈব সার প্রয়োগ ও জৈব বালাইনাশক

নরসিংদীতে জৈব সার প্রয়োগ ও জৈব বালাইনাশক পদ্ধতিতে সবজি চাষ


ফটো-সাইফুল ইসলাম রুদ্র

সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি: নরসিংদীতে জৈব সার প্রয়োগ ও জৈব বালাইনাশক পদ্ধতিতে সবজিসহ বিভিন্ন ফসলের চাষ করে ব্যাপক সফলতা পেয়েছেন চাষিরা। এ পদ্ধতিতে চাষাবাদের ফলে উৎপাদন বেড়েছে কয়েক গুণ। দীর্ঘদিনের হতাশা ও লোকসান ঘুচিয়ে ক্রমান্বয়ে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হচ্ছেন কৃষকরা। তাদের উৎপাদিত বিষমুক্ত সবজি রপ্তানি হচ্ছে ইউরোপে।

 

নরসিংদী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে শিবপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ১৫০ হেক্টর জমিতে বিষমুক্ত সবজি চাষ করা হয়েছে। সেক্স ফেরোমন ফাঁদ বা ট্র্যাপ পদ্ধতিতে জৈব বালাইনাশকের (ট্রেসার) মাধ্যমে পোকা দমন করে উৎপাদিত সবজি দেশ পেরিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি দেশে রপ্তানি হচ্ছে।

 

কৃষকরা জানান, তারা এটিকে জাদুর বাক্সও বলে থাকেন। এ পদ্ধতিতে বেগুন, কাঁকরোল, শসা, মিষ্টি কুমড়া, চাল কুমড়া, বরবটি ও লেবু উৎপাদিত হচ্ছে। গত জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের ২৭টি দেশে লেবু ৭০ টন, বেগুন ১২ টন ও কাঁকরোল ৬ টন রপ্তানি হয়েছে।

 

কৃষকরা আরো জানান, বিদেশিরা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে মাঠে এসে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বিষমুক্ত নিশ্চিত হওয়ার পর সবজি ও লেবু সংগ্রহ করে থাকেন। এতে কৃষকরা সবজির দামও ভালো পান। বিদেশিরা কাঁকরোল প্রতি কেজি ৩০ টাকা, বেগুন ৫০ টাকা, শসা ৪০ টাকা, করলা ৬০ টাকা, বরবটি ৩০ টাকা, জালি একটি প্রকারভেদে ১৫-৩০ টাকা ও ৮০টি (এক পণ বা কিয়া) লেবু ১ হাজার টাকা দরে কৃষকদের কাছ থেকে কিনে নেন।

 

শিবপুর উপজেলার বাঘাব ইউনিয়নের খড়ক মাড়া গ্রামের কৃষক দুলাল মিয়া বলেন, ‘আমরা চার ভাই প্রায় ৪০ বিঘা জমিতে উপজেলা কৃষি অফিসের সহযোগিতায় বিষমুক্ত সবজি চাষ করে আসছি। বিষমুক্ত সবজি চাষে উৎপাদন খরচের তুলনায় আয় ভালো হচ্ছে। চলতি মৌসুমে উৎপাদন খরচ বাদে আমার একারই ৮ লাখ টাকা আয় হবে বলে আশা করছি।

 

কৃষকরা সেক্স ফেরোমন ফাঁদকে কৃষকদের ভাগ্য উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি উল্লেখ করেন। তারা বলেন, এর ব্যবহারে অর্থ সাশ্রয় হয় এবং বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন সম্ভব হয়। বহির্বিশ্বে যার চাহিদাও রয়েছে বেশি। এ ছাড়া জৈব বালাইনাশক পদ্ধতিতে চাষ করার ফলে মাটির গুণাগুণ ভালো থাকে। মানুষ পরিবেশগত ক্ষতির হাত থেকে বেঁচে যাচ্ছে।

 

শিবপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হানিফ সিকদার বলেন, সেক্স ফেরোমন ট্র্যাপ পদ্ধতিতে বিষমুক্ত সবজি উৎপাদন প্রক্রিয়া শিবপুরে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। এতে ভোক্তারা নিরাপদ সবজি পাচ্ছেন। এ ছাড়া এখানকার সবজি ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোতে রপ্তানি হচ্ছে।

নরসিংদীর কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপপরিচালক সুভাষ চন্দ্র গায়েন বলেন, ‘জৈব সার প্রয়োগ ও জৈব বালাইনাশক পদ্ধতিতে চাষাবাদের জন্য কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করতে মাঠপর্যায়ে কাজ করছে স্থানীয় কৃষি বিভাগ। এ পদ্ধতিতে চাষ করে কৃষকরা যেমন অর্থনৈতিক মুক্তি পেয়েছেন তেমনি কৃষিতে ব্যাপক সফলতা অর্জন করেছেন।

 

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »