শিরোনামঃ
ঝালকাঠিতে বাই-সাইকেল সেলাই মেশিন সহ ছাত্রী ও হতদরিদ্রদের মাঝে বিভিন্ন উপকরন বিতরন যশোর সদর উপজেলা নির্বাচনে ২ লাখ ৬৪ হাজার ভোটের ব্যবধানে নৌকা জয়ী কালীর বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন এর উদ্বোধন সুনামগঞ্জ জেলার প্রথমবারের মতো ছাতকে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ রূপগঞ্জের দাউদপুর ইউপি নির্বাচনে ২ ন্ং ওয়ার্ডে প্রতিপক্ষ ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী’র সমর্থকের উপর হামলা আহত-৫ দলীয় সরকারের অধীনে এদেশে কখনই সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: মির্জা ফখরুল  প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ইবি কর্মকর্তা সমিতির ৫ লাখ টাকা প্রদান কসবায় ৩০ কেজি ভারতীয় গাঁজা উদ্ধার গ্রেফতার-২ রাঙ্গামাটিতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ নেতাকে গুলি করে হত্যা আগাম জামিন নিক্সন চৌধুরী এমপির
ধামরাইয়ে এক এস আই’র বিরুদ্ধে চা দোকান-বসতবাড়িতে

ধামরাইয়ে এক এস আই’র বিরুদ্ধে চা দোকান-বসতবাড়িতে হামলা ভাঙচুর ও নারীদেরকে মারধরের অভিযোগ


ফটো-সংগ্রহীত

ধামরাই প্রতিনিধি: ধামরাইয়ে এক এস আই’র বিরুদ্ধে চা দোকান-বসতবাড়িতে হামলা ভাঙচুর ও নারীদেরকে মারধরের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। শনিবার সকালে চৌহাট ইউনিয়নের মুন্সীচর গ্রামের চা দোকানদার মোকাদ্দেস আলী এ অভিযোগ দায়ের করেন। তবে অভিযুক্ত এস আই জানিয়েছেন হামলা ভাঙচুরের সময় তিনি ঘটনাস্থলেই ছিলেন না। জানা গেছে, ঢাকার রমনা থানায় কর্মরত এস আই আনিসুর রহমান তিন দিন আগে ছুটিতে ধামরাইয়ের চৌহাট ইউনিয়নের মুন্সিরচর গ্রামের বাড়িতে আসেন। মুন্সিরচর বাজারে মোকাদ্দেস আলীর চায়ের দোকান ও বসত বাড়ি নিজেদের জমি দাবি করে তা দখল নিতে তিনি ও তার ভাই আতুল্লাচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শহিদুর রহমানের নেতৃত্বে কয়েকজনের একটি দল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে হামলা ও ভাঙচুর চালায়। এসময় দোকানে থাকা মোকাদ্দেসের স্ত্রী সামেলা বেগম ও তার মেয়ে রেহেনা আক্তার পলি বাধা দিলে তাদের টেনে হেচড়ে দোকান থেকে বের করে রাস্তায় নিয়ে বেদম মারপিট করে এবং দোকানের মালামাল ও চেয়ার টবিল তছনছ করে ঘরে তালা লাগিয়ে দেয় তারা। সামেলা ও পলির চিৎকারে গ্রামবাসী ও আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে পালিয়ে যায় তারা। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় সামেলা বেগমকে সাটুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্থানীয়রা। এ ঘটনায় শনিবার সকালে এস আই আনিসুর রহমান ও তার ভাই শিক্ষক শহিদুর রহমানসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এস আই আনিসের নির্যাতনের শিকার সামেলা ও তার পরিবার জানান, দারোগা বলে এলাকায় প্রভাব খাটিয়ে আমাদের গরীবের উপর জুলুম করেছেন। তিনি এর বিচার চান। তবে অভিযুক্ত তবে এস আই আনিসুর রহমান মারপিট ও ভাঙচুরের কথা অস্বীকার করেছেন। এবিষয়ে ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, পুলিশ বলে সে আইনের উর্দ্ধে নয়। অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »