শিরোনামঃ
বৌমার সন্তান না হওয়ায় নিজেই গর্ভবতী হলেন শাশুড়ি! যশোরের ঝিকরগাছায় মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় কলেজ ছাত্র নিহত অগ্নিবীণা ক্রীড়া ও যুব সংঘের পক্ষ থেকে আবু নাইম ইকবালকে ফুলেল শুভেচ্ছা এসআই আকবরকে পালাতে সহায়তা করায় এসআই হাসান বরখাস্ত হালদায় ৯ কেজি ওজনের আঘাতপ্রাপ্ত মৃত মা মাছ উদ্ধার গজারিয়ায় পাকা সেতুতে উঠতে বাঁশের সাঁকো ৬ বছরেও কাটেনি ভোগান্তি ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের গজারিয়ায় ২০ মিনিট ব্যাবধানে ৪ টি সড়ক দুর্ঘটনায় আহত-২৪ নরসিংদীর ইটাখোলা হাইওয়ে পুলিশের নিরাপদ সড়ক শীর্ষক সচেতনতা কার্যক্রম নরসিংদীর মনোহরদীতে পুস্প সাহা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা  ঠাকুরগাঁওয়ে মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি করলো প্রশাসন
জাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

জাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ


ফটো-জাবি

জাবি প্রতিনিধি: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সাজ্জাদুল ইসলামের (সুমন সাজ্জাদ) বিরুদ্ধে দায়িত্ব পালনে নৈতিকতা পরিপন্থি ও বৈধতার প্রশ্ন তুলে অভিযোগ করেছেন একই বিভাগের একজন শিক্ষক। অভিযোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. আমির হোসেন ও উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ নূরুল আলমকে নিয়ে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। অভিযুক্ত শিক্ষক অধ্যাপক সাজ্জাদুল ইসলামের (সুমন সাজ্জাদ) বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ও সিন্ডিকেট সচিব বরাবর আবেদন করেছেন অধ্যাপক নাজমুল হাসান তালুকদার। অভিযোগপত্র সূত্রে জানা যায়, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব অ্যাডভান্সড স্টাডিজ এবং শিক্ষা পর্ষদের সভায় উপস্থিত থেকেও একই সময়ে একই সময়ে অধ্যাপক সুমন সাজ্জাদ বাংলা বিভাগের ২য় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষায় ২০২ নং কোর্সের প্রধান পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন করেন, যা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের নীতি নৈতিকতা পরিপন্থি। অভিযোগ পত্রে আরো উল্লেখ করা হয়, অধ্যাপক সুমন সাজ্জাদ প্রধান পরিদর্শকের সম্মানী প্রাপ্তির লোভ সংবরণ করতে না পেরে নীতি নৈতিকতা ও বৈধতা জলাঞ্জলী দিয়ে চৌর্যবৃত্তির আশ্রয় নিয়েছেন। তাই অধ্যাপক সুমন সাজ্জাদের এমন দায়িত্ব পালনে নৈতিকতা পরিপন্থি কার্যক্রমের বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানান অভিযোগকারী শিক্ষক। অভিযোগের বিষয়ে অধ্যাপক সুমন সাজ্জাদ বলেন, ওই দিন আমার এম. ফিলের শিক্ষার্থীর জন্য বোর্ড অব অ্যাডভান্সড স্টাডিজ সভায় উপস্থিত ছিলাম। আর পরীক্ষার হলের দায়িত্ব পূর্বনির্ধারিত। উপস্থিত না থাকলে দায়িত্ব পালনে অবহেলা করা হতো। অভিযোগকারী অধ্যাপক নাজমুল হাসান তালুকদার দাবি করেন তার নিজেরও ওই দিন দুই জায়গায় দায়িত্ব পালনের কথা ছিল। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের কথা বিবেচনা করে তিনি পরীক্ষা পরিদর্শকের দায়িত্ব থেকে বিরত থাকেন। এ বিষয়ে তদন্ত কমিটির সদস্য ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আমির হোসেন বলেন, তদন্ত কমিটি দুই শিক্ষককে ডেকে কথা বলে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »