শিরোনামঃ
সোনারগাঁয়ে মেয়র প্রার্থী ডালিয়া লিয়াকতের পক্ষে উঠান বৈঠক ও মাস্ক বিতরণ জাতিসংঘে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে পাঁচটি প্রস্তাব গৃহীত নরসিংদীর বেলাবোতে সহপাঠীদের নির্যাতনে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রের মৃত্যু ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতিতে টিকা কার্যক্রম ব্যাহত নরসিংদীতে শিবপুরে গ্রাম্য কবিরাজের গলাকাটা লাশ উদ্ধার ব্রাহ্মণবাড়িয়া কলাগাছের গোড়ায় পাওয়া শিশুটির মা শিক্ষিকা পারভীন নরসিংদীতে স্বাস্থ্য সহকারীদের অব্যাহত কর্মবিরতির কারণে টিকা না পেয়ে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে শিশুরা নরসিংদীতে আশিরনগরের সিএসজি স্ট্যান্ডে চাঁদাবাজির সত্যতা কিছুটা স্বীকার করলেন নেতারা বিএনপি ক্ষমতায় যেতে চোরাগলি খুঁজছে: কাদের প্রতিবন্ধীদের আলাদাভাবে যত্ন নিবেন: ইকরামুল হক টিটু
ছেলের নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে গর্ভধারিনী

ছেলের নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে গর্ভধারিনী মায়ের অভিযোগ ফুলপুর থানায়


ফটো-তপু রায়হান রাব্বি

তপু রায়হান রাব্বি, ফুলপুর (ময়মনসিংহ)প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহ ফুলপুর উপজেলায় ছেলের নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে মা অভিযোগ করেন থানায়।

এ ঘটনাটি উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বালিয়া বাজারের পশ্চিমে বড়বাড়ি সংলগ্ন বেলটিয়া বালিয়া গ্রামে মৃত এনায়েত আলীর স্ত্রী বৃদ্ধা জহুরা খাতুন(৭০) থানায় নিজের সন্তানের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, এ নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে ছোট ছেলে জাহাঙ্গীর আলম(৪৫) এবং তার স্ত্রী আকলিমা আক্তার(৩৫) এর বিরুদ্ধে ফুলপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন নির্যাতিত মা জহুরা খাতুন। তার স্বামী এনায়েত আলীর গত ৪/৫ বছর আগে মারা যান।

নির্যাতিতা জহুরা খাতুনের দম্পতি জীবনে দুই ছেলের মধ্যে বড় ছেলে মোঃ শাহজাহান এর স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ঢাকায় থাকে ছোট ছেলে জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী আকলিমাকে নিয়ে বাড়িতেই থাকেন, মেয়ের ঘরের নাতীন নিয়ে বিধবা জহুরা একই বাড়িতে থাকে।

পারিবারিক বিষয় নিয়ে মারধর করে ঘরে তালা লাগিয়ে ঘরছাড়াও করে দিয়েছিলেন জাহাঙ্গীর ও আকলিমা অবশেষে স্থানীয়দের চাপ প্রয়োগে বাধ্য হয় বাড়িতে ফিরিয়ে নিতে। ঘরের তালা খুলে দিলেও থেমে থাকেনি অকথ্য ভাষায় গালাগালি আর নির্যাতন।

সন্তানের হাতে লাঞ্ছিত মা সহ্য না করতে পেরে নিরুপায় হয়ে সুবিচারের দাবিতে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন থানায় এবং ছেলের উপযুক্ত শাস্তিও চাইলেন সত্তরোর্ধ্ব গর্ভধারিনী মা।

থানায় করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২৯ অক্টোবর রোজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা রাতে জহুরা খাতুনকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে ছেলে জাহাঙ্গীর, মারধর করেই ক্ষান্ত হয়নি ছেলে ঘরে তালা লাগিয়ে দিয়ে সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা মাকে বের করে দিয়েছে বাড়ি থেকে। নির্যাতিতা জহুরা খাতুন বলেন,

বিভিন্ন অযুহাতে তার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম ও তার স্ত্রী আকলিমা আক্তার তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার পাশাপাশি শারীরিকভাবেও নির্যাতন করেন। একাধিকবার তাকে মেরে আহত করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এ পর্যন্ত বিভিন্ন বিষয়ে সে আমাকে কয়েকবার মারধরসহ মানসিক ও শারিরিকভাবে নির্যাতন করেছে। লোকলজ্জায় এতোদিন কাউকে এগুলো বলিনি।

ছেলের অত্যাচারে অতিষ্ঠ্য মা তার ছেলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রথমে স্থানীয় থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার পরও নিজ ছেলের অত্যাচারে এতটাই অতিষ্ঠ্য হয়ে উঠেছিলো যে থানায় অভিযোগ

দেয়ার পরও মনকে স্থীর রাখতে না পেরে সাংবাদিকদের কাছেও অত্যাচারী ছেলের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য কাছে আকুতি জানিয়েছেন এই গর্ভধারিনী মা।

ইউপি চেয়ারম্যান আজহারুল মুজাহিদ সরকার এর সাথে মুঠোফোনে কথা বলে, তিনি জানান অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরকে ডাকা হয়েছিল স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য কিন্তু সে উপস্থিত হয়নি।

ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইমারত হোসেন গাজী বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি এবং বৃদ্ধা ওই নারীকে নির্যাতনের অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করছেন থানার এসআই মো.আব্দুল জলিল ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »