শিরোনামঃ
সোনারগাঁ আনন্দবাজারের ঝুঁকিপূর্ণ বেইলি ব্রিজ স্থায়ী সেতু নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন এমপি খোকা  নরসিংদীতে শিবপুরে চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়ার অভিযোগ ৫ সন্তানের বাবাকে পেতে শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন প্রেমিকার! সাংবাদিক মাসুদের বিরুদ্ধে সেই দুর্ণীতিবাজ প্রধান শিক্ষকের জিডি নরসিংদীতে আখের চাহিদা ও দাম বেশি হওযায আখ চাষিদের মুখে সাফল্যের হাসি ফুটেছে আধুনিকতার ছোঁয়ায় হারিয়ে যাচ্ছে লাঙ্গল দিয়ে হাল চাষ ইলিশ ধরা বন্ধ থাকবে ৪ অক্টোবর থেকে ২২ দিন শিশু সন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যা নরসিংদীতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করে কোটি টাকার বাণিজ্য ধানের ব্যাকটেরিয়াজনিত পাতা পোড়া রোগ

ছেলের নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে গর্ভধারিনী মায়ের অভিযোগ ফুলপুর থানায়


ফটো-তপু রায়হান রাব্বি

তপু রায়হান রাব্বি, ফুলপুর (ময়মনসিংহ)প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহ ফুলপুর উপজেলায় ছেলের নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে মা অভিযোগ করেন থানায়।

এ ঘটনাটি উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বালিয়া বাজারের পশ্চিমে বড়বাড়ি সংলগ্ন বেলটিয়া বালিয়া গ্রামে মৃত এনায়েত আলীর স্ত্রী বৃদ্ধা জহুরা খাতুন(৭০) থানায় নিজের সন্তানের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, এ নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে ছোট ছেলে জাহাঙ্গীর আলম(৪৫) এবং তার স্ত্রী আকলিমা আক্তার(৩৫) এর বিরুদ্ধে ফুলপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন নির্যাতিত মা জহুরা খাতুন। তার স্বামী এনায়েত আলীর গত ৪/৫ বছর আগে মারা যান।

নির্যাতিতা জহুরা খাতুনের দম্পতি জীবনে দুই ছেলের মধ্যে বড় ছেলে মোঃ শাহজাহান এর স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ঢাকায় থাকে ছোট ছেলে জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী আকলিমাকে নিয়ে বাড়িতেই থাকেন, মেয়ের ঘরের নাতীন নিয়ে বিধবা জহুরা একই বাড়িতে থাকে।

পারিবারিক বিষয় নিয়ে মারধর করে ঘরে তালা লাগিয়ে ঘরছাড়াও করে দিয়েছিলেন জাহাঙ্গীর ও আকলিমা অবশেষে স্থানীয়দের চাপ প্রয়োগে বাধ্য হয় বাড়িতে ফিরিয়ে নিতে। ঘরের তালা খুলে দিলেও থেমে থাকেনি অকথ্য ভাষায় গালাগালি আর নির্যাতন।

সন্তানের হাতে লাঞ্ছিত মা সহ্য না করতে পেরে নিরুপায় হয়ে সুবিচারের দাবিতে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন থানায় এবং ছেলের উপযুক্ত শাস্তিও চাইলেন সত্তরোর্ধ্ব গর্ভধারিনী মা।

থানায় করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২৯ অক্টোবর রোজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা রাতে জহুরা খাতুনকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে ছেলে জাহাঙ্গীর, মারধর করেই ক্ষান্ত হয়নি ছেলে ঘরে তালা লাগিয়ে দিয়ে সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধা মাকে বের করে দিয়েছে বাড়ি থেকে। নির্যাতিতা জহুরা খাতুন বলেন,

বিভিন্ন অযুহাতে তার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম ও তার স্ত্রী আকলিমা আক্তার তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার পাশাপাশি শারীরিকভাবেও নির্যাতন করেন। একাধিকবার তাকে মেরে আহত করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এ পর্যন্ত বিভিন্ন বিষয়ে সে আমাকে কয়েকবার মারধরসহ মানসিক ও শারিরিকভাবে নির্যাতন করেছে। লোকলজ্জায় এতোদিন কাউকে এগুলো বলিনি।

ছেলের অত্যাচারে অতিষ্ঠ্য মা তার ছেলের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রথমে স্থানীয় থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার পরও নিজ ছেলের অত্যাচারে এতটাই অতিষ্ঠ্য হয়ে উঠেছিলো যে থানায় অভিযোগ

দেয়ার পরও মনকে স্থীর রাখতে না পেরে সাংবাদিকদের কাছেও অত্যাচারী ছেলের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য কাছে আকুতি জানিয়েছেন এই গর্ভধারিনী মা।

ইউপি চেয়ারম্যান আজহারুল মুজাহিদ সরকার এর সাথে মুঠোফোনে কথা বলে, তিনি জানান অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরকে ডাকা হয়েছিল স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য কিন্তু সে উপস্থিত হয়নি।

ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইমারত হোসেন গাজী বলেন, আমরা অভিযোগ পেয়েছি এবং বৃদ্ধা ওই নারীকে নির্যাতনের অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করছেন থানার এসআই মো.আব্দুল জলিল ।

লাইক ও শেয়ার করে পাশে থাকুন..........
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »