শিরোনামঃ
৬ মণ পয়সা নিয়ে বিপাকে ব্যবসায়ী ঝালকাঠিতে বাই-সাইকেল সেলাই মেশিন সহ ছাত্রী ও হতদরিদ্রদের মাঝে বিভিন্ন উপকরন বিতরন যশোর সদর উপজেলা নির্বাচনে ২ লাখ ৬৪ হাজার ভোটের ব্যবধানে নৌকা জয়ী কালীর বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন এর উদ্বোধন সুনামগঞ্জ জেলার প্রথমবারের মতো ছাতকে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ রূপগঞ্জের দাউদপুর ইউপি নির্বাচনে ২ ন্ং ওয়ার্ডে প্রতিপক্ষ ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী’র সমর্থকের উপর হামলা আহত-৫ দলীয় সরকারের অধীনে এদেশে কখনই সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়: মির্জা ফখরুল  প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ইবি কর্মকর্তা সমিতির ৫ লাখ টাকা প্রদান কসবায় ৩০ কেজি ভারতীয় গাঁজা উদ্ধার গ্রেফতার-২ রাঙ্গামাটিতে পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ নেতাকে গুলি করে হত্যা
চট্টগ্রাম মহানগরের ছাত্র রাজনীতির অগ্রণী ভূমিকায় হেলাল

চট্টগ্রাম মহানগরের ছাত্র রাজনীতির অগ্রণী ভূমিকায় হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর


মোঃ সেলিম হোসেন,চট্টগ্রাম ব্যুরো চিফঃ বর্তমান উপ-অর্থ সম্পাদক কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগ। ১৯৮৭ সাল থেকে ২০১৯ পর্যন্ত যার দীর্ঘ পথচলায় সহস্র বাধা বিপত্তি, মামলা হামলা জেল জুলুমকে তোয়াক্কা না করে চট্টগ্রাম মহানগরে ছাত্র-যুবকদের আইডল হয়ে আছে হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। ৯০ এর সৈরাচার বিরোধী আন্দোলন ৯১-৯৬ আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার আগ পর্যন্ত বি এন পি -জামাত এর মামলা হামলা জেল জুলুম যার জন্য ছিলো নিত্য নৈমত্তিক ব্যাপার। তিনবারের সফল মেয়র,নগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত মরহুম এ বি এম মহিউদ্দীন চৌধুরীর প্রথম সারির অনুসারী হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। পর্যায়ক্রমে রাজনৈতিক জীবনের শুরুতে ওয়ার্ড ছাত্রলীগ এর সাধারন সম্পাদক, ১৯৯৭ ইংরেজি ওমর গনি এম ই এস কলেজ ছাত্র সংসদের জি এস, ১৯৯৯ এ সরাসরি শেখ হাসিনার তত্বাবধানে গঠিত স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য, পরবর্তিতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগ এর সদস্য,বর্তমানে কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ অর্থ সম্পাদক। ২০০১ সালে বি এন পি ক্ষমতায় এলে হেলাল আকবর চৌধুরী বাবরকে পরপর কয়েকবার বিনা মামলায় প্রতিহিংসা মূলকভাবে বি,এন,পির এক এমপি রোষানলের কারনে কয়েকবার কারাবরণ করতে হয়েছিল। ২০০৪ এ র‍্যাব গঠন হবার পর বাবরকে দেশ ত্যাগে বাধ্য করা হয়। চট্টগ্রামে ৯০ সাল থেকে আওয়ামী লীগের যত আন্দোলন হয়েছে হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর এর অগ্রণী ভূমিকা ছিলো অপরিসীম।২০০৪ এর পর প্রায় ৭ বছর বিদেশে অবস্থান করার পর ২০০৯ সালে বাবর বাংলাদেশে এসে আবার রাজনীতিতে সক্রীয় হয়ে উঠে,অবশ্য বিদেশে থাকা অবস্থায় বিদেশের মাটিতেই আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠন যুবলীগের রাজনীতিতে সক্রীয় ভূমিকা রেখেছে। ২০১৭ সালে জামাত শিবিরের দখলে থাকা চট্টগ্রাম কলেজ, মহসিন কলেজ জামাত শিবিরকে উৎখাত করে ছাত্রলীগকে প্রতিষ্ঠা করে এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছবি সম্বলিত ব্যানার পোষ্টার লাগানো সহ কলেজ ক্যাম্পাসে জয়বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু শ্লোগানে মুখরিত করতে সক্ষম হয় একমাত্র হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। রাজনৈতিক জীবনে যত বাধা এসেছে হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর কৌশলে তার মোকাবেলা করেছেন। চট্টগ্রাম মহানগরে বর্তমানে স্বঘোষিত ত্যাগীরা তার ১০০% এর ১ % জেল জুলুম,হুলিয়া সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নির্যাতন নিপিড়ন এর শিকার হয়নি। আজকাল চট্টগ্রাম মহানগরের অনেক নেতার কাছে বাবর একজন শক্ত কঠোর রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী হিসাবে পরিচিত,কারণ হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর উড়ে এসে জুড়ে বসেনি,তৃনমূল থেকে একটু একটু করে বর্তমানে তার এই অবস্থান।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »