শিরোনামঃ
জলঢাকা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডে নির্বাচনী গণসংযোগে এগিষে: জোনাব আলী ছাতকে নৌ-পথে চাঁদাবাজি বন্ধে থানায় মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত ত্রিশালে পৌর নৌকার মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব নবী নেওয়াজ সরকারের মত বিনিময় সোনারগাঁয়ে ব্রাদার্স ফাউন্ডেশনের প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে ইয়াং স্টারের জয়লাভ নরসিংদীতে আলোকবালীতে শীতার্তদের মাঝে কম্বলসহ সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ নরসিংদীতে শিবপুরে ডিবির হাতে ইয়াবা ও ফেন্সিডিলসহ ৪ জন গ্রেফতার শার্শায় অভিনব কায়দায় নবজাতক শিশু চুরি নরসিংদীর শিবপুরে শহীদ আসাদের ৫২তম মৃত্যুবার্ষিকী ২০ জানুয়ারী (বুধবার) পালিত ৩ বছর পেরিয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পাঠকমেলা জীবননগরে আর নয় বাল্যবিবাহ-এস এম মুনিম লিংকন
চট্টগ্রাম ওয়াসা ভবনে আগুনের ঘটনা নিয়ে দেখা

চট্টগ্রাম ওয়াসা ভবনে আগুনের ঘটনা নিয়ে দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন


ফটো-চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: অগ্নিকাণ্ডের নেপথ্যে ‘রহস্য’ বলে মনে করছেন অনেকে। দমকল কর্তৃপক্ষ প্রথমে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত বললেও এখন বলছে ভিন্ন কথা। অনেকের ধারণা, মেগা প্রকল্পের দুর্নীতি আড়াল করতে এ ঘটনা ঘটানো হতে পারে। নথিপত্র পুড়ে ফেলাই ছিল উদ্দেশ্য। কর্তৃপক্ষ বলছে, ঘটনাটির তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষ হলেই বলা যাবে কি ঘটেছিল। গত বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ওয়াসা ভবনের তৃতীয় তলার একটি কক্ষে আগুন লাগে। প্রায় একঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। আগুনে অফিসের বিভিন্ন প্রকল্পের কাগজপত্র, কম্পিউটার ও টেবিল পুড়ে দুই লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আলী আকবর। ঘটনার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘পুড়ে যাওয়ার ধরন দেখে প্রাথমিকভাবে আমরা ধারণা করছি বৈদ্যুতিক গোলযোগ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে থাকতে পারে।’ অবশ্য পরে ফায়ার সার্ভিস এই বক্তব্য থেকে সরে এসেছে। ফায়ার সার্ভিস চট্টগ্রামের উপ-সহকারী পরিচালক ফরিদ আহমদ বলেন, ‘আমরা সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখতে পেয়েছি, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেনি। কীভাবে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে আমরা সেটি খতিয়ে দেখছি। ওয়াসার শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি নুরুল ইসলাম বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালকের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের রিট আদেশের যোগসাজশ থাকতে পারে। ব্যবস্থাপনা পরিচালকের অনিয়ম-দুর্নীতির তথ্য-প্রমাণ ধ্বংস করতে অগ্নিকা-ের ঘটনাটি সাজানো হয়েছে। ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী একেএম ফজলুল্লাহর বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ এনে হাসান আলী নামের এক গ্রাহক হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন। এর প্রেক্ষিতে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন কী পদক্ষেপ নিয়েছে, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে আগামী এক মাসের মধ্যে এসব তথ্য আদালতে উপস্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন। ২৩ সেপ্টেম্বর বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।জানা যায়, ওয়াসার তিনতলায় অবস্থিত ওই কক্ষের পূর্ব-দক্ষিণ অংশে দুটি কম্পিউটার বসানো হয়েছে। ওই অংশে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। আগুনে শুধু ওই দুটি কম্পিউটার আর সেখানে থাকা ফাইলগুলো পুড়ে গেছে। কিন্তু ওই অংশের সঙ্গে লাগানো কাচ দিয়ে তৈরি একটি কক্ষের কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। ওই কক্ষে প্রবেশ করার সময় শুরুতে থাকা টেবিল চেয়ারগুলোও অক্ষত রয়ে গেছে। আগুনে শুধু ওই দুটি কম্পিউটারের সিপিইউ আর ফাইল পুড়ে গেছে। কীভাবে ওই কক্ষে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে বিষয়টি নিশ্চিত হতে তারা ইতোমধ্যে ৫ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। তিন কর্মদিবসের মধ্যে এই কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) একেএম ফজলুল্লাহ। ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক ফরিদ আহমদ বলেন, অগ্নিকা-টি বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে ঘটার সম্ভাবনা দেখছি না। কারণ, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হলে ওই কক্ষে থাকা বিদ্যুতের তারগুলো সব পুড়ে যেতে। আগুন পুরো কক্ষে ছড়িয়ে পড়তো। কিন্তু সেরকম কিছু দেখা যায়নি। দুটি কম্পিউটারের মনিটর ঠিক আছে, সিপিইউ থেকে আসা মনিটরের সঙ্গে লাগানো তারটিও অক্ষত আছে। কিন্তু কম্পিউটারগুলোর সিপিইউসহ হার্ডডিস্ক পুরোপুরি পুড়ে গেছে। তাই আমরা ধারণা করছি, অন্য কোনোভাবে এই কক্ষে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। তদন্ত শেষে বলা যাবে। ওয়াসার এমডি একেএম ফজলুল্লাহর মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। ওয়াসার তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম বলেন, আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে আমরা এখনো জানতে পারিনি। তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। তদন্ত শেষ হলেই বরা যাবে আসলে কি হয়েছিল। ওই কক্ষে তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আরিফুল ইসলামের অধীনে থাকা বিভিন্ন প্রকল্পে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কাজ করতেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রকল্প, মদুনাঘাট প্রকল্পসহ কয়েকটি মেগা প্রকল্পের সব কাগজপত্র ওই কক্ষে ছিল।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »