খুবির ৩ শিক্ষককে বরখাস্ত কেন অবৈধ নয়:

খুবির ৩ শিক্ষককে বরখাস্ত কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট


ফটো-সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) এক শিক্ষককে চাকরি থেকে বরখাস্ত ও দুই শিক্ষককে অপসারণ করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, এই মর্মে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে তিনজনকে বরখাস্ত ও অপসারণের আদেশের ওপর স্থিতাবস্থা দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ সংশ্লিষ্টদের চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আবেদনের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ এম রাসেল চৌধুরী।

এ বিষয়ে ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া জানান, উচ্চ আদালত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিগত ২৮ জানুয়ারির আদেশের বিরুদ্ধে রুল জারি করেছেন। একইসঙ্গে স্থিতাবস্থার আদেশ দিয়েছেন।

এর আগে গত ৩১ জানুয়ারি ওই শিক্ষকদের বরখাস্ত ও অপসারণ প্রত্যাহার চেয়ে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছিল। সেই নোটিশের জবাব না পেয়ে তাঁরা এ রিট দায়ের করেন।

ওই তিন শিক্ষককে ২৩ তারিখ অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেট সভায় বরখাস্ত এবং অপসারণের সিদ্ধান্ত হয়। পরে ২৮ জানুয়ারি এ বিষয়ে চিঠি ইস্যু করেন রেজিস্ট্রার। ওই চিঠি প্রত্যাহার চেয়ে এ নোটিশ পাঠানো হয়।

বরখাস্ত শিক্ষক হলেন-বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা ডিসিপ্লিনের সহকারী শিক্ষক মো. আবুল ফজল। যাদের অপসারণ করা হয়েছে তারা হলেন-ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের প্রভাষক হৈমন্তী শুক্লা কাবেরী ও বাংলা ডিসিপ্লিনের প্রভাষক শাকিলা আলম।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »