কোম্পানীগঞ্জে আবার হরতালের ডাক দিলেন ওবায়দুল কাদেরের

কোম্পানীগঞ্জে আবার হরতালের ডাক দিলেন ওবায়দুল কাদেরের ভাই


ফটো-সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে রাজাকার পরিবারের সন্তান বলায় একরাম চৌধুরীর বহিষ্কার দাবিতে আবার হরতাল ডাকা হয়েছে। কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ আগামী ৩১ জানুয়ারি সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত হরতালের ডাক দিয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট রূপালী চত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশে এ কথা বলেন বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। তিনি বলেন, নোয়াখালীর এমপি একরামুল করিম চৌধুরী দল থেকে বহিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত এ আন্দোলন চলবে। নাকে নিশ্বাস থাকা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। এছাড়া নোয়াখালীর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খায়রুল আনম সেলিমকে অনেক শ্রদ্ধা করতাম, তিনি আজ মাতাল একরাম চৌধুরীর সুরে কথা বলেন। তিনি টাকার কাছে বিক্রি হয়ে গেছেন।

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খান, সাধারণ সম্পাদক নুরনবী চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ইস্কান্দার হায়দার চৌধুরী বাবুল, বসুরহাট পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আজম পাশা চৌধুরী রুমেল প্রমুখ।

কাদের মির্জা বলেন, আমি একরাম চৌধুরীকে বলব, আপনি অস্ত্রবাজি বন্ধ করেন, আমরা অস্ত্রবাজির রাজনীতি করি না। আজকে নোয়াখালীর বিভিন্ন জায়গায় একরাম চৌধুরীর লোক অস্ত্রবাজি করছে। আগামীকাল মঙ্গলবার ওবায়দুল কাদেরকে কটূক্তি করার প্রতিবাদে নোয়াখালীতে হাজার হাজার ত্যাগী আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী সমাবেশের ডাক দিয়েছে। কর্মসূচির আগে অনেক ত্যাগী নেতাকর্মীকে মারধর করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে, বাড়ি বাড়ি সন্ত্রাসী দিয়ে হামলা চালিয়েছে। আহতরা হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।

তিনি ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনার লোকজন হাসপাতালে আহত হয়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন, আর আপনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শুনতে খারাপ লাগছে, জেলের ভয় দেখাবেন না, আপনার চেয়েও বেশি জেল খেটেছি, আপনি আমাদের আদর্শ, আপনি আমাদের গর্ব, আপনার প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা আছে, আমরা শনিবার পর্যন্ত অপেক্ষা করব, এরপর কোম্পানীগঞ্জের মানুষ আপনাকে শ্রদ্ধা করবে না, আপনার কথা শুনবে না।

একরাম চৌধুরীর পতন না হওয়া পর্যন্ত কোম্পানীগঞ্জের জনগণ আন্দোলন চালিয়ে যাবে। আমেরিকাতেও ভোটের কারচুপি হয়, বসুরহাট পৌরসভায় নৌকা জয়লাভ করেছে, আপনি ভাইকে অভিনন্দন জানিয়েছেন কিন্তু ভোটারদের অভিনন্দন জানাননি, অভিনন্দন জানান, জয়নাল হাজারী, আলাউদ্দিন নাসিম, গাজীপুরের মেয়র, বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নাঈম নিজাম, ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্তসহ মিডিয়ার সাংবাদিকরা।

তিনি আরও বলেন, আগামী ৩১ জানুয়ারি রোববার কোম্পানীগঞ্জে হরতাল। এ হরতালে গাড়ি, দোকানপাটসহ সব বন্ধ থাকবে। একটি পাখিও উড়তে পারবে না। এরপর ঢাকাভিত্তিক কর্মসূচি দেওয়া হবে, সে কর্মসূচিতে দেশের এমপি, মেয়র, আওয়ামী লীগের বড় বড় নেতা উপস্থিত থাকবেন। আজ ঢাকায় মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। সেখানে ১৫ থেকে ২০ হাজার লোক উপস্থিত থাকার কথা ছিল, ওবায়দুল কাদের সাহেব বন্ধ করে দিয়েছেন। সাধারণ সম্পাদক সাহেব শাসন করতে শিখেছেন, আদর করতে শেখেননি।

এর আগে কোম্পানীগঞ্জে গত রোববার ডাকা হরতাল কর্মসূচি প্রত্যাহার করে উপজেলা আওয়ামী লীগ। তখন আবদুল কাদের মির্জা বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের অনুরোধে রোববারের হরতাল প্রত্যাহার করা হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »