শিরোনামঃ
সাংবাদিক গোলাম সরওয়ারকে উদ্ধারে সিইউজে’র ১৬ ঘণ্টার আল্টিমেটাম শেরপুরে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের ৪৮ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত  স্বাধীনতা পুরস্কার পাওয়ায় মন্ত্রী গাজীকে সংবর্ধনা দিলেন রূপগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠন শ্রীবরদীতে আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকের ওপর হামলা করেছে হোটেল শ্রমিক বাঘারপাড়ায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে-উপলক্ষে আলোচনা সভা ও র‌্যালির আয়োজন মেয়েকে ধর্ষণ মায়ের মামলায় ধর্ষক পিতা কারাগারে সিংড়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে সুজন নামে এক খামারির মৃত্যু পালকিতে চড়ে বউ আনলেন কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রানা শার্শার গাতিপাড়া খেয়া ঘাট ব্রীজটি মরণ ফাঁদ মুজিববর্ষের মূলমন্ত্র কমিউনিটি পুলিশ সর্বত্র এই প্রতিপাদ্যে জামালপুরে কমিউনিটি পুলিশ সমাবেশ অনুষ্ঠিত
কুমিল্লা হোমনায় মাদ্রাসার নবম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

কুমিল্লা হোমনায় মাদ্রাসার নবম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ


ফটো তালেব

কুমিল্লা প্রতিনিধি: জমিতে কাজ করা কৃষক বাবাকে ভাত খাইয়ে বাড়ি ফেরার পথে যুব লীগের চিহ্নিত সন্ত্রাসী সুমন সরকারের (২৯) লোলুপ দৃষ্টি পড়ে মেয়েটির ওপর। একেবারে দিন-দুপুরে, বেলা এগারোটায় খোলা জায়গায় জোরপূর্বক এই ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। ধর্ষক সুমন এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও কয়েক মামলার আসামি। গত শুক্রবার হোমনা উপজেলার মাথাভাঙা ইউনিয়নের ভংগারচর গ্রামে ন্যাক্কারজনক এ ঘটনা ঘটে। শনিবার রাতে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে হোমনা থানায় ধর্ষক সুমনের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা করেন। মামলা করায় ছাত্রীর বাবা-মাকে নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছে সুমন অভিযোগ ধর্ষিতার পরিবারের। তার বিরুদ্ধে এটি ছাড়াও ইতিপূর্বে হোমনা থানায় গণধর্ষণ, মাদক ও মারামারিসহ আরও সাতটি মামলা রয়েছে। রবিবার মেয়েটির স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কুমেক হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। থানা ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মেয়েটি উপজেলা সদরের ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসায় নবম শ্রেণির নিয়মিত ছাত্রী। অবসরে বাবা-মার কাজেও সহায়তা করে থাকে সে। ওই দিনও কৃষক বাবা জমিতে কাজ করছিলেন। তাই বাবার জন্য সকাল সাড়ে দশটায় জমিতে খাবার নিয়ে গিয়েছিল সে। সকাল এগারোটায় বাবাকে খাবার খাইয়ে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার দাড়িঁগাও গ্রামের মো. রেজাউল করিম ওরফে রাজা মিয়ার ছেলে বখাটে সুমনের লোলুপ দৃষ্টি পড়ে তার ওপর। মেয়েটি ভংগারচর গ্রামের জনৈক রজ্জব আলী মাস্টারের কাঠ বাগানের কাছে এলে তাকে জোরপূর্বক মাটিতে ফেলে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে। তারপর তাকে হুমকি দেয়, এ ঘটনা কারও কাছে প্রকাশ করলে তার বাবা-মাকে মেরে ফেলবে।বিষণ্ন মুখে বাড়িতে গেলে পরিবারের অন্যরা প্রশ্ন করে। তখন সে জানায় সুমন তাকে ধর্ষণ করেছে। সামাজিক লোকলজ্জার ভয়ে সঙ্গে সঙ্গে ব্যাপারটি জানায়নি পরিবারের কেউ। তবে এ ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ারও চেষ্টা করা হয়েছে বলে শোনা গেছে। পরে গত শনিবার রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে হোমনা থানায় ধর্ষণ মামলা করলে ঘটনা জানাজানি হয়। এ নিয়ে এলাকার সুমনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ বিরাজ করছে। ধর্ষক সুমনের বিরুদ্ধে হোমনা থানায় গত ২০১৭ সালে একটি গণধর্ষণ, ২০১৩, ’১৭ ও ’১৮ সালে তিনটি মাদক মামলা এবং এবং ২০১৫ সালে তিনটি মারামারির মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। সে বর্তমানে জামিনে গত শুক্রবার নবম শ্রেণির ওই মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ করে। ভিকটিমের বড় ভাই মো. ইসমাইল বলেন, ‘মামলা করার পর থেকে সুমন ও তার লোকজন আমাদের নানাভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে; মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে। সুমন খুব খারাপ মানুষ। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করুক। আমরা তার উপযুক্ত বিচার চাই। মাথাভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নাজিরুল হক ভূইয়া জানান, ‘সুমন এলাকার একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী। এই ধরণের ঘটনা কোনোভাবে মানতে পারি না। আমি সুমনের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি। হোমনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাজী নাজমুল হক জানান, ‘সুমন এলাকার একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। এর আগেও ২০১৭ সালে তার বিরুদ্ধে থানায় ১টি গণধর্ষণের মামলা, ৩টি মাদক ও ৩টি মারামারিসহ সাতটি মামলা রয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সুমনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »