শিরোনামঃ
সোনারগাঁয়ে পানি নিস্কাশনের যায়গায় ময়লার ভাগার, দেখার কেউ নেই ছাতকে উত্যেক্তকারিদের হামলায় নারী আহত: থানায় অভিযোগ শিবপুর উপজেলার বি.বি.এস ইটভাটার কাজকর্ম চালানো হচ্ছে শিশু শ্রমিক সোনারগাঁয়ে হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশনের চার দফা কর্মবিরতি পালন রিষাবাড়ীতে নদীতে ঝাপিয়ে পড়া ৩ জুয়াড়ির লাশ উদ্ধার, দায়িত্ব অবহেলায় ২ পুলিশ প্রত্যাহার, আটক ২ ঢাকা থেকে পায়রাবন্দর পর্যন্ত রেললাইন নিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রী প্রাইভেট ও সরকারি হাসপাতাল মিলেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলানো হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শাসন দীর্ঘায়িত করার ইচ্ছা সরকারের নেই: কাদের দেশরক্ষার জন্য নদীরক্ষা অপরিহার্য: তথ্যমন্ত্রী নরসিংদীতে আশিরনগর সিএনজি স্ট্যান্ডে স্টিকার ব্যবহার করে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ
কসবায় প্রতিবেশীর ঝগড়া ফেরাতে যাওয়ায় গৃহবধুকে হত্যা

কসবায় প্রতিবেশীর ঝগড়া ফেরাতে যাওয়ায় গৃহবধুকে হত্যা


দেশের গর্জন ফটো

বিশেষ প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় প্রতিবেশীর ঝগড়া থামাতে যাওয়ায় লাঠির আঘাতে প্রাণ কেড়ে নিলো নারগিছ আক্তার (৩০) নামে এক গৃহবধুর। গত সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর ) বিকেলে উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের সাতগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত নারগীছ আক্তার ওই গ্রামের দরিদ্র ইজিবাইক চালক স্বপন মিয়ার স্ত্রী ও পাশ্ববর্তী শিকারপুর গ্রামের ছিবিল মিয়ার মেয়ে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনা পরিবারে চলছে শোকের মাতম। নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেলে উপজেলার বিনাউটি সাতগ্রামের রাজু মিয়া (২৮) পরিবারের সাথে ঝগড়া বাধে তার চাচা নুরু মিয়ার। পাশের বাড়ীর বাসিন্দা হওয়ায় দুই সন্তানের জননী নারগিছ আক্তার যায় তাদের ঝগড়া থামাতে। ঝগড়া থামাতে কেন আসলো ক্ষিপ্ত হয়ে ঘাতক রাজু মিয়ার হাতে থাকা লাঠি দিয়ে সজোরে মাথার পিছনে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়ে নারগিছ আক্তার। স্থানীয়রা উদ্ধার করে তন্তর বাসষ্ট্যান্ডে অবস্থিত একটি ক্লিনিকে নিয়ে যায়, সেখানে অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক তাকে জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করলে হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায় নারগিছ। লাশ নিয়ে বাড়িতে আসলে ক্ষিপ্ত রাজু মিয়া নিহতের বাড়িতে এসে পুনরায় নিহতের স্বামী স্বপন মিয়াকেও মারধোর করে। খবর পেয়ে নিহতের স্বজনরা গিয়ে থানায় খবর দিলে সন্ধ্যায় পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই নিহত নারগিছ আক্তারের মা সায়েরা বেগম বাদী হয়ে ৩ জন সহ আরো অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামী করে কসবা থানায় মামলা দায়ের করেছেন । কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ লোকমান হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঝগড়া থামাতে যাওয়ায় নারগিছ আক্তার নামে এক গৃহবধুকে মেরে ফেলার অভিযোগ নিহতের মা মামলা দায়ের করেছেন। আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2020 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »