ইন্দোনেশিয়ায় সাড়ে ৪৫ হাজার বছর আগের গুহাচিত্রের

ইন্দোনেশিয়ায় সাড়ে ৪৫ হাজার বছর আগের গুহাচিত্রের সন্ধান


ফটো-সংগৃহীত

বিশ্ব গর্জন ডেস্কঃ ইন্দোনেশিয়ার একটি গুহায় আনুমানিক সাড়ে ৪৫ হাজার বছর আগের আঁকা একটি ছবির সন্ধান পাওয়ার দাবি করেছেন প্রত্নতাত্ত্বিকরা।

দেশটির সুলাওয়েসি দ্বীপের লেয়াং তেডোঙ্গে গুহায় বন্য শূকরের ওই ছবিটি পাওয়া যায়। খবর বিবিসির।

গাঢ় লাল মেটে রঞ্জক পদার্থ ব্যবহার করে আঁকা সুলাওয়েসি শূকরের প্রমাণ আকৃতির চিত্রটি ওই অঞ্চলে মানুষের বসতি স্থাপনের সবচেয়ে প্রাচীন প্রমাণ হিসেবেও দেখা হচ্ছে।

গুহাচিত্রে প্রাণীর এ ছবি নিয়ে সায়েন্স অ্যাডভান্স জার্নালে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে।

এর অন্যতম লেখক ম্যাক্সিম উব্যার ওই গুহাচিত্রের ওপরে ক্যালসাইটের মজুদ খুঁজে পান; ইউরেনিয়াম-সিরিজ আইসোটোপ ডেটিংয়ের সাহায্যে যে মজুদের বয়স বের হয় সাড়ে ৪৫ হাজার বছর।

উব্যার বলেন, যারা এটি বানিয়েছে, তারা পুরোপুরি আধুনিক ছিল, তারা আমাদের মতোই ছিল এবং পছন্দের যে কোনো ছবি আঁকার সক্ষমতা ও উপকরণ তাদের ছিল।

সায়েন্স অ্যাডভান্স জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৩৬ সেন্টিমিটার দীর্ঘ ও ৫৪ সেন্টিমিটার প্রস্থের ছবিটিতে শূকরের মুখে যে শিং আকৃতির পিণ্ড দেখা যাচ্ছে তা ওই প্রজাতিটির পূর্ণ বয়স্ক পুরুষেরই বৈশিষ্ট্য।

শূকরটির পেছনের অংশের ওপরের দিকে দুটি হাতের ছাপও পাওয়া গেছে। শূকরটি অন্য দুই শূকরের দিকে মুখ করে আছে বলে মনে হচ্ছে, যাদের অংশবিশেষই সংরক্ষিত আছে।

প্রতিবেদনের আরেক লেখক অ্যাডাম ব্রুম বলেন, শূকরটি অন্য দুই শূকরের লড়াই বা সামাজিক মিথস্ক্রিয়া পর্যবেক্ষণ করছিল বলে মনে হচ্ছে।

ইন্দোনেশিয়ায় পাওয়া এই গুহাচিত্রে এখন পর্যন্ত কোনো প্রাণী বা চরিত্রের সবচেয়ে প্রাচীন ছবি মিললেও এটিই মানুষের আঁকা সবচেয়ে পুরনো ছবি নয়।

দক্ষিণ আফ্রিকায় হ্যাশট্যাগের মতো দেখতে একটি ডুডল বানানো হয়েছিল প্রায় ৭৩ হাজার বছর আগে, সেটিই এখন পর্যন্ত পাওয়া সবচেয়ে পুরনো আঁকা ছবি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার এবং লাইক করুন..
visitor counter
All rights reserved © 2021 দেশের গর্জন | Desher Garjan
Design & Developed BY Subrata Sutradhar
Translate »